Wednesday, October 5, 2022
হোম আন্তর্জাতিককাগজের অভাবে পাকিস্তানে নতুন পাঠ্যবই ছাপা বন্ধ

কাগজের অভাবে পাকিস্তানে নতুন পাঠ্যবই ছাপা বন্ধ

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

সংশ্লিষ্টদের দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিতে হবে

কিছু উন্নয়ন প্রকল্প ধীর গতির কারণে জনভোগান্তি চরমে উঠেছে। এছাড়া অপরিকল্পিত খোঁড়াখুঁড়ি তো চলছে।...

কেশবপুরে কৃষকলীগের পূজা মণ্ডপ পরিদর্শন

সোহেল পারভেজ, কেশবপুর কেশবপুর উপজেলার বিভিন্ন পূজা ম-প পরিদর্শন করেছেন কৃষকলীগে নেতৃবৃন্দ। মঙ্গলবার সংগঠনের উপজেলা,...

দেবহাটায় জাতীয় কন্যা শিশু দিবস উদ্যাপন

দেবহাটা প্রতিনিধি : ‘সময়ের অঙ্গীকার কন্যা শিশুর অধিকার’ প্রতিপ্রাদ্য নিয়ে দেবহাটায় জাতীয় কন্যাশিশু দিবস উদ্যাপন...

শার্শায় ভুল মানুষের দ্বারা রাজনীতি পরিচালিত হওয়ায় প্রকৃত নেতাকর্মীরা অত্যাচার জুলুম নির্যাতনের শিকার : আশরাফুল আলম লিটন

বেনাপোল প্রতিনিধি : যশোর জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বেনাপোল পৌরসভার সাবেক মেয়র আশরাফুল...

বার্তাকক্ষ।। চলতি বছর আগস্টে পাকিস্তানে শুরু হতে যাচ্ছে নতুন শিক্ষাবর্ষ। তবে এবছর নতুন বই শিক্ষার্থীরা পাবেন কি না তা নিয়ে তৈরি হয়েছে সংশয়। কারণ দেশটিতে কাগজের অভাবে পাঠ্যপুস্তক ছাপা বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ‘অল পাকিস্তান পেপার মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশন’।কাগজ সংকটের কারণ বৈশ্বিক মুদ্রাস্ফীতি হলেও পাকিস্তানে বর্তমান কাগজের সংকট সরকারের ভুল নীতি ও স্থানীয় কাগজ শিল্পের একচেটিয়া আধিপত্যের কারণে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
অল পাকিস্তান পেপার মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশন, পাকিস্তান অ্যাসোসিয়েশন অব প্রিন্টিং গ্রাফিক আর্ট ইন্ডাস্ট্রিজ (পিএপিজিএআই) এবং অন্যান্য সহযোগী সংগঠন, যারা এর সঙ্গে যুক্ত তারা শীর্ষস্থানীয় অর্থনীতিবিদ কায়সার বাঙ্গালির সঙ্গে একটি যৌথ সংবাদ সম্মেলন করে। এতে মুদ্রণ ব্যবসায়ী, প্রকাশক ও কাগজ ব্যবসায়ীদের সংগঠনগুলো জানিয়েছে, বর্তমান সংকটের কারণে স্কুল-কলেজের আগামী শিক্ষাবর্ষের জন্য পাঠ্যবই ছাপানো বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।
পাকিস্তানে কাগজের তীব্র সংকট চলছে। কাগজের দাম আকাশচুম্বী। দিন দিন কাগজের দাম বাড়ায় প্রকাশকরা বইয়ের দাম নির্ধারণ করতে পারছেন না। এই সংকটের কারণে সিন্ধু, পাঞ্জাব ও খাইবার পাখতুনখোওয়ার পাঠ্যপুস্তক বোর্ড বই ছাপাতে পারবে না।
একজন পাকিস্তানি কলামিস্ট দেশের ‘অদক্ষ ও ব্যর্থ শাসকদের’ কাছে প্রশ্ন তুলেছেন যে তারা কীভাবে অর্থনৈতিক সমস্যার সমাধান করবেন যখন দেশটি আগের ঋণ পরিশোধের জন্য ঋণ নেওয়ার দুষ্টচক্রে আটকা পড়েছে।
পাকিস্তানের জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল মূলত ২০২৩ সালের আগস্টে। কিন্তু তার আগেই অনাস্থা ভোটে হেরে ক্ষমতা ছাড়তে হয়েছে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে। অতীতের ধারা অনুসরণ করে পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) নেতৃত্বাধীন জোট সরকারের পতনও হয়েছে মেয়াদ পূর্ণ করার আগেই।
এরপর দেশটির প্রধানমন্ত্রী হন শাহবাজ শরিফ। রাজনৈতিক গোলযোগের মধ্যে দেশটির অর্থনীতি ধসে পড়ার মুখে। এরই মধ্যে দেশটিতে কয়েক দফা বেড়েছে জ্বালানি তেলের দাম। জিনিসপত্রের দামও বেশি।
এর আগে কাগজ সংকটের কারণে শ্রীলঙ্কা শিক্ষা দপ্তর গত মার্চ মাসে দেশের ১০ লাখের বেশি স্কুলে বার্ষিক পরীক্ষা স্থগিত করতে বাধ্য হয়েছিল
সূত্র: এএনআই, এনডিটিভি

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

ইকুয়েডরে কারাগারে দাঙ্গা, নিহত ১৫

বার্তাকক্ষ ইকুয়েডরে কারাগারে দাঙ্গায় ১৫ জন নিহত হয়েছেন। ইকুয়েডরের কারাগারের ব্যবস্থাপনা সংস্থা ‘এসএনএআই’ এক বিবৃতিতে...

যুক্তরাষ্ট্রে হারিকেন ইয়ানের আঘাতে মৃত বেড়ে ১০১

বার্তাকক্ষ যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা ও নর্থ ক্যারোলিনা অঙ্গরাজ্যে ঘূর্ণিঝড় ইয়ানের আঘাতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১০১ জনে...

ইউক্রেনের চার অঞ্চলকে সংযুক্তিকরণের অনুমোদন রুশ পার্লামেন্টের

বার্তাকক্ষ ইউক্রেনের চারটি অঞ্চলকে রাশিয়ায় অন্তর্ভুক্ত করার অনুমোদন দিয়েছে রুশ পার্লামেন্ট। সোমবার পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ দুমায়...