Friday, September 30, 2022
হোম জাতীয়সম্ভাবনার নতুন অধ্যয়ে বাংলাদেশ

সম্ভাবনার নতুন অধ্যয়ে বাংলাদেশ

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

চাকরির নামে ভুয়া কাগজপত্র তৈরী করায় ৩ জন গ্রেফতার

শাহিনুর রহমান, পাটকেলঘাটা পাটকেলঘাটায় কোয়েষ্ঠ ফার্মা নামে একটি কোম্পানিতে চাকরি দেয়ার নাম করে ভুয়া কাগজপত্র...

মাত্র দু বছরে মৃত্যুর মুখে নদী : খরস্রোতা শোলমারি এখন ৩-৪ মিটারের সরু নালা

খুলনা সংবাদদাতা খুলনার বটিয়াঘাটা উপজেলার বুক চিরে বয়ে গেছে শোলমারি নদী। এর স্রোত ও গভীরতা...

জনগণের ক্ষমতায়নের জন্য দুর্নীতি দূর করতে হবে : বিভাগীয় কমিশনার

খুলনা সংবাদদাতা ‘তথ্য প্রযুক্তির যুগে জনগণের তথ্য অধিকার নিশ্চিত হোক’ এই প্রতিপাদ্য নিয়ে বৃহস্পতিবার (২৯...

তালায় দুধে ভেজাল প্রতিরোধ শীর্ষক আলোচনা

শিরিনা সুলতানা, তালা : সাতক্ষীরার তালায় সামাজিক সম্প্রীতি ও দুধে ভেজাল প্রতিরোধ শীর্ষক আলোচনা সভা...

বার্তাকক্ষ
অবশেষে দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান । বহুপ্রত্যাশিত স্বপ্নের পদ্মা সেতুর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর মধ্যদিয়ে নতুন এক ইতিহাস রচিত হল। তৈরি হল রাজধানীর সাথে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের মেলবন্ধন। খুলে গেল দখিনের দুয়ার। অনুভূতি, গর্ব আর অহংকারের সেতু পদ্মা। এটি বাংলাদেশের অর্থনৈতিক সক্ষমতার প্রতীক। শত বাধা পেরিয়ে অসম্ভবকে জয় করে প্রমত্ত পদ্মার ওপর নির্মিত হয়েছে অপার সম্ভাবনার সেতু। স্বপ্ন-সাধ-আর বিশ্বাসের গাঁথুনিতে অসাধ্যকে সাধন করার এক দুর্বার সফলতা পদ্মা সেতু। ফলে সম্ভাবনার নতুন অধ্যয়ে বাংলাদেশ।
দীর্ঘদিনের লালিত স্বপ্ন ও বহু কাঙ্ক্ষিত পদ্মা সেতু আজ আর স্বপ্ন নয়, সত্যি। বাঙালির দীর্ঘদিনের স্বপ্ন পদ্মার ওপর নির্মিত হয়েছে সেতু। নিজ অর্থে বিশাল এ সেতু বানিয়ে বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ। এই সেতুকে ঘিরে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে গড়ে উঠবে বহুমাত্রিক অর্থনৈতিক জোন। তৈরি হবে নতুন নতুন শিল্পপ্রতিষ্ঠান, বাড়বে কর্মসংস্থান। গতি বাড়বে বেনাপোল, মোংলা, ভোমরা ও পায়রা বন্দরের। দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের সাথে সারাদেশের যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন ঘটবে এবং সহজতর হবে। কৃষি, মৎস্যসহ বিভিন্ন পণ্য পরিবহণে ব্যয় ও সময় বাঁচবে এবং যাতায়াতে সহজ হবে। এই সেতুর কল্যাণে আমূল বদলে যাবে দক্ষিণাঞ্চলের ক্রীড়াঙ্গনও। সুন্দরবন এবং কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতসহ নানা প্রত্নতাত্ত্বিক ও দর্শনীয় স্থানগুলোতে পর্যটক বাড়বে। শুধু দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলই নয়, পদ্মা সেতুর সুফল মিলবে গোটা দেশের মানুষের। উন্মোচন হবে নতুন সম্ভাবনার দ্বার। ব্যবসা-বাণিজ্য-বিনিয়োগ বৃদ্ধি ও শিল্পায়নের মাধ্যমে দেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নে এ সেতু গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।
সংশ্লিষ্টরা বলছেন, নদীশাসনের ফলে যেমন ভাঙন আতঙ্কও দূর হয়েছে পদ্মার, তেমনি দক্ষিণাঞ্চলের সঙ্গে রাজধানীর যাতায়াতের দীর্ঘ সংকটও কাটছে। কেটেছে ঝড়-ঝঞ্ঝা মাথায় নিয়ে খরস্রোতা পদ্মা পাড়ি দেওয়ার ভোগান্তি। থাকছে না ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষার প্রহরও। পদ্মা পার হওয়া যাবে এখন ৫-৬ মিনিটে। পাশাপাশি তৈরি হয়েছে পর্যটনসহ নানা খাতে ব্যবসা-বাণিজ্যের সুযোগ। যেটি দেশের প্রবৃদ্ধিতে বড় ভূমিকা রাখবে। সমীক্ষা অনুযায়ী, ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা সেতু মোট দেশজ উৎপাদন (জিডিপি) বাড়াবে ১ দশমিক ২৩ শতাংশ। তবে দক্ষিণাঞ্চলের জিডিপি বাড়বে ২ দশমিক ৩ শতাংশ। তবে ২১ জেলার মানুষের যে স্বপ্ন পূরণ হচ্ছে, তার মূল্য অর্থনৈতিক হিসাবের চেয়ে ঢের বেশি। দুই স্তর বিশিষ্ট স্টিল ও কংক্রিটে নির্মিত এই সেতুর উপরের স্তরে চার লেনের সড়কপথ এবং নিচের স্তরে একক রেলপথ। ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দৈর্ঘ্য সেতুটি নির্মাণে ব্যয় ৩০ হাজার ১৯৩ কোটি ৩৯ লাখ টাকা ধরা হলেও খরচ হয়েছে ২৭ হাজার ৭৩২ কোটি ৮ লাখ টাকা।

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

ইউক্রেনের ৪ অঞ্চলকে নিজের সঙ্গে যুক্ত করছে রাশিয়া

বার্তাকক্ষ রাশিয়া আনুষ্ঠানিকভাবে ইউক্রেনের চারটি অঞ্চলকে নিজের সঙ্গে যুক্ত করার ঘোষণা দিয়েছে। শুক্রবার এই অঞ্চলগুলোকে...

রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যার এক বছরে ক্যাম্পে আরও ২৭ খুন

বার্তাকক্ষ কক্সবাজারের আশ্রয় ক্যাম্পে রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যার এক বছর পূর্ণ হলো বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর)।...

মহেশপুরে ৪০ পিচ সোনার বারসহ ১জন আটক

আব্দুস সেলিম, মহেশপুর ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার যাদবপুর সীমান্ত থেকে ৪০ পিচ সোনার বারসহ শওকত আলী...