Friday, October 7, 2022
হোম আজকের পত্রিকাজিনের ঢিবি খুঁড়ে মিলল বৌদ্ধ মন্দির

জিনের ঢিবি খুঁড়ে মিলল বৌদ্ধ মন্দির

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

হামলা চালিয়ে কিশোরকে তুলে নিয়ে গেলো ‌‘রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা’

বার্তাকক্ষ কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে আবদুর রহমান আবছার (১৬) নামে এক কিশোরকে অপহরণের...

৩০ লাখ মোবাইল সিম বন্ধ হবে নভেম্বরে

বার্তাকক্ষ সিম বন্ধের বিষয়ে নতুন সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। আগামী নভেম্বর মাসে...

নভেম্বরে দুটি দেশ সফর করবেন প্রধানমন্ত্রী

বার্তাকক্ষ আগামী নভেম্বরে দুটি দেশ সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জলবায়ু শীর্ষ সম্মেলনে অংশগ্রহণের জন্য...

বাসচাপায় যুবলীগ নেতা নিহত: চালক কারাগারে

বার্তাকক্ষ ঢাকা: রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে বাসচাপায় যুবলীগ নেতা ফারুক নিহত হওয়ার ঘটনায় গ্রেফতার বিলাস পরিবহনের চালক...

সাতক্ষীরা সংবাদদাতা

এতকাল জিনের ঢিবি নামেই পরিচিত ছিল স্থানটি। সাতক্ষীরার তালা উপজেলার আগৌলঝাড়া অবস্থিত এই স্থানকে ঘিরে লোকমুখে প্রচলিত ছিল নানা উপকথাও। অতিলৌকিক নামের কারণেই এই স্থানে যেতে ভয় পেতো সাধারণ মানুষ। এমনকি এখানে ভয় পেয়ে মানুষের মৃত্যুর কথাও শোনা যায়। স্থানীয় রাজিব হোসেন নামে এক ব্যক্তি বলেন, ‘বাবার মুখে শুনেছি, রাতারাতি একটি পুকুর খনন করেছিল একদল জিন। পরে পুকুর থেকে খনন করা মাটি তারা এখানে এনে ফেলেছিল। তাই ঝুঁড়িঝাড়া জিনের ঢিবি নামেই এই স্থানটি পরিচিতি পেয়েছে। এই ঢিবিতে আগে লোকজন আসতে ভয় পেতো। এখানে নানা অসঙ্গতিও চোখে পড়েছে অনেকের।’ তবে বিজ্ঞান নির্ভর আধুনিক যুগে এমন ধ্যানধারণার কোনো ভিত্তি নেই। তাই সব গুঞ্জন দূরে সরিয়ে ঢিবিটি খনন করার ইচ্ছা প্রকাশ করে প্রতœতত্ত্ব অধিদপ্তর। আর তাতেই মিলল এক অত্যাশ্চর্য ফল! যুগ যুগ ধরে জিনের ঢিবি হিসেবে পরিচিতি পাওয়া ওই ঢিবি খুঁড়ে প্রতœতাত্বিকরা পেলেন এক বৌদ্ধ মন্দিরের নিদর্শন। এর মধ্য দিয়ে উন্মোচিত হতে চলেছে দক্ষিণাঞ্চলের ওই এলাকাটিতে হাজার বছরের পুরনো এক মানব সভ্যতার অজানা ইতিহাস ও ঐতিহ্য।
প্রতœতাত্ত্বিক গবেষকরা ধারণা করছেন, সুন্দরবন সংলগ্ন ওই এলাকাটিতে দেড় হাজার বছর আগে এক জনবসতি ছিল। কালের বিবর্তনে হারিয়ে গেছে ওই জনবসতির জীবনযাত্রার নানা চিহ্ন।
জানা যায়, শুরুর দিকে ঢিবিটি অনেক জায়গাজুড়ে বিস্তৃত থাকলেও পরে চারপাশ থেকে অনেক জায়গা মানুষের দখলে চলে যায়। অবশিষ্ট ঢিবিতে ২০১৯ সালের ১১ নভেম্বর খননকাজ শুরু করে প্রতœতত্ত্ব অধিদপ্তরের খুলনা ও বরিশাল বিভাগের ৬ সদস্যের একটি ইউনিট। অর্ধ একর জায়গাজুড়ে টানা তিন মাস খননের পর ধীরে ধীরে বেরিয়ে আসতে থাকে মধ্যযুগীয় ইটের তৈরি কাঠামোর স্থাপত্যশৈলী। পরে ঢিবির নিচে পাওয়া ইট নিয়ে দীর্ঘ গবেষণার পর ধারণা পাওয়া যায়, স্থাপনাটি সপ্তম শতক কিংবা তারও আগে নির্মিত একটি বৌদ্ধ মন্দির। ক্রুশাকৃতির মন্দিরটি পূর্ব-পশ্চিমে ৯৯.৪০ মিটার এবং উত্তর-দক্ষিণে ৯৫.৪০ মিটার। কেন্দ্রীয় গর্ভগৃহসহ ছোট-বড় প্রায় ৩৩টি কক্ষ, প্রদক্ষিণ পথ ও পশ্চিম দিকে মন্দিরের প্রবেশপথ আবিষ্কৃত হয়েছে।
খননকাজের তত্ত্বাবধায়ক আফরোজা খান মিতা জানান, সদ্য আবিষ্কৃত মন্দিরটির সঙ্গে পার্শ্ববর্তী ভরতভায়নার সাদৃশ্য আছে। এ ছাড়া এখানে পাওয়া মৃৎ পাথর ও অন্যান্য বস্তু থেকে অনুমান করা হচ্ছে, স্থাপনাটি আদি মধ্যযুগীয়। মন্দির স্থাপিত হওয়ার এখানে মানববসতি ছিল বলে অনুমান করা হচ্ছে। প্রতœস্থানটির বয়স এক থেকে দেড় হাজার বছর হতে পারে।
মিতা বলেন, ‘প্রতিদিন দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে দর্শনার্থীরা এখানে আসেন। স্থানটি পর্যটনকেন্দ্রে পরিণত করতে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

এ বিষয়ে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক হুমায়ন কবির জানান, স্থানটি প্রতœতত্ত্ব অধিদফতরের আওতায় রয়েছে। দেখাশুনার জন্য সার্বক্ষণিক নিরাপত্তা কর্মী রয়েছে। তবে আরও বেশি পর্যটনবান্ধব করতে বিভিন্ন কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

কেশবপুরে কৃষকলীগের পূজা মণ্ডপ পরিদর্শন

সোহেল পারভেজ, কেশবপুর কেশবপুর উপজেলার বিভিন্ন পূজা ম-প পরিদর্শন করেছেন কৃষকলীগে নেতৃবৃন্দ। মঙ্গলবার সংগঠনের উপজেলা,...

দেবহাটায় জাতীয় কন্যা শিশু দিবস উদ্যাপন

দেবহাটা প্রতিনিধি : ‘সময়ের অঙ্গীকার কন্যা শিশুর অধিকার’ প্রতিপ্রাদ্য নিয়ে দেবহাটায় জাতীয় কন্যাশিশু দিবস উদ্যাপন...

শার্শায় ভুল মানুষের দ্বারা রাজনীতি পরিচালিত হওয়ায় প্রকৃত নেতাকর্মীরা অত্যাচার জুলুম নির্যাতনের শিকার : আশরাফুল আলম লিটন

বেনাপোল প্রতিনিধি : যশোর জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বেনাপোল পৌরসভার সাবেক মেয়র আশরাফুল...