Wednesday, October 5, 2022
হোম আজকের পত্রিকামণিরামপুরের ঢাকুরিয়া-কুয়াদা রাস্তার বেহাল দশা

মণিরামপুরের ঢাকুরিয়া-কুয়াদা রাস্তার বেহাল দশা

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

সংশ্লিষ্টদের দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিতে হবে

কিছু উন্নয়ন প্রকল্প ধীর গতির কারণে জনভোগান্তি চরমে উঠেছে। এছাড়া অপরিকল্পিত খোঁড়াখুঁড়ি তো চলছে।...

কেশবপুরে কৃষকলীগের পূজা মণ্ডপ পরিদর্শন

সোহেল পারভেজ, কেশবপুর কেশবপুর উপজেলার বিভিন্ন পূজা ম-প পরিদর্শন করেছেন কৃষকলীগে নেতৃবৃন্দ। মঙ্গলবার সংগঠনের উপজেলা,...

শার্শায় ভুল মানুষের দ্বারা রাজনীতি পরিচালিত হওয়ায় প্রকৃত নেতাকর্মীরা অত্যাচার জুলুম নির্যাতনের শিকার : আশরাফুল আলম লিটন

বেনাপোল প্রতিনিধি : যশোর জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বেনাপোল পৌরসভার সাবেক মেয়র আশরাফুল...

দেবহাটায় জার্নালিস্ট এ্যাসোসিয়েশনের কমিটি গঠন

রুহুল আমিন, দেবহাটা : দেবহাটায় সাতক্ষীরা জেলা জার্নালিষ্ট এ্যাসোসিয়েশনের কমিটি গঠন হয়েছে। মঙ্গলবার দেবহাটা রিপোটার্স...

কুয়াদা প্রতিনিধি

মণিরামপুরের ঢাকুরিয়া-কুয়াদা ও ঢাকুরিয়া-সতীঘাটা পাকা রাস্তার যত্রতত্র পিচ, খোয়া-বালি উঠে গর্তে পানি জমে চলাচলে অনুপযোগী হওযায় যাত্রীরা চলাচলে চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছে। মণিরামপুর উপজেলার ঢাকুরিয়া-কুয়াদা ৬ কিলোমিটার ও ঢাকুরিয়া-সতীঘাটা ৭ কিলোমিটার পাকা রাস্তার বিভিন্ন জায়গায় পিচ খোয়া উঠে গর্ত হয়ে পানি জমে গেছে। এ রাস্তরাটি ঢাকুরিয়া- কুয়াদা হয়ে যশোর শহরে মিলেছে। ঢাকুরিয়া ও হরিদাসকাটি ইউনিয়নের কমপক্ষে ১৫/১৬ টি গ্রামের লোকজন এ রাস্তা দিয়ে যশোর শহরে যাতায়াত করে। ঢাকুরিয়ার সাথে যশোর শহরের সরাসরি একমাত্র যোগাযোগ ব্যবস্থা ও এলাকার মানুষের একান্ত নির্ভরশীল অবহেলিত রাস্তা নিয়ে যেন কারও কোন মাথা ব্যথা নেই। রাস্তা খারাপ হওয়ায় এলাকার মানুষ যশোর শহরে যেতে দারুণ দুর্ভোগের শিকার হয়। সে কারণে রূপদিয়া দিয়ে যশোর শহরে যেতে হয়। ফলে একদিকে যেমন অতিরিক্ত ৫কিলোমিটার রাস্তা বেশি ঘুরতে হয় অন্যদিকে তেমনি অধিক ভাড়াও গুণতে হয়। দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতির সময় আয় অপেক্ষা ব্যয় বেড়েছে খুব বেশি। তাই চালকরা জানান সংসার চালাতে হিমসিম খাচ্ছে তারা। এ রাস্তায় প্রতিদিন শত শত ইজিবাইক, সিএনজি, ভাড়াবাহী মোটরসাইকেল, ভ্যান, নসিমন, আলমসাধুসহ হাজার হাজার মানুষ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করে।, ঢাকুরিয়া-কুয়াদা রাস্তার সব জায়গার পিচ, খোয়া-বালি উঠে গর্ত হয়ে পানি জমে যায়। কয়েকজন ব্যবসায়ী জানান,প্রতিদিন দোকানের মালপত্র আনতে বাজারে যেতে হয়। রাস্তাা খারাপ হবার কারণে চলাচল করা যায় না। রাস্তা অনেক ঝুকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। স্থানীয়রা আরও জানান, এলাকার মানুষের জরুরীভাবে কোন মূমূর্ষ রোগী যশোর সদর হাসপাতালে নেয়ার প্রয়োজন হলে দ্রুততম নিতে পারে না। ফলে রোগীর জীবনের ঝুঁকি হয়ে পড়ে। এলাকায় কোন অগ্নিকান্ড ঘটলে ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি ঘটনাস্থলে পৌঁছাতে বিলম্ব হয় বলে স্থানীয়রা জানান। এ কারণে মারাত্মক দূর্ঘটনা ঘটে। এলাকার বেশির ভাগ মানুষ কৃষি নির্ভরশীল। তাদের উৎপাদীয় ফসল বাজারে নিতে চরম ভোগান্তির শিকার হয়। তাছাড়া মালামাল বাজারে নিতে অধিক খরচ হয়। পাশাপাশি এলাকার চাকরিজীবি, স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা সময়মত গন্তব্যে পৌঁছাতে পারে না। এ পাকা রাস্তাা চলাচলের অনুপযোগী হওয়ায় এলাকার সকল স্তরের মানুষের চরম দুর্ভোগের শিকার হচ্ছে।

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

কেশবপুরে কৃষকলীগের পূজা মণ্ডপ পরিদর্শন

সোহেল পারভেজ, কেশবপুর কেশবপুর উপজেলার বিভিন্ন পূজা ম-প পরিদর্শন করেছেন কৃষকলীগে নেতৃবৃন্দ। মঙ্গলবার সংগঠনের উপজেলা,...

শার্শায় ভুল মানুষের দ্বারা রাজনীতি পরিচালিত হওয়ায় প্রকৃত নেতাকর্মীরা অত্যাচার জুলুম নির্যাতনের শিকার : আশরাফুল আলম লিটন

বেনাপোল প্রতিনিধি : যশোর জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বেনাপোল পৌরসভার সাবেক মেয়র আশরাফুল...

দেবহাটায় জার্নালিস্ট এ্যাসোসিয়েশনের কমিটি গঠন

রুহুল আমিন, দেবহাটা : দেবহাটায় সাতক্ষীরা জেলা জার্নালিষ্ট এ্যাসোসিয়েশনের কমিটি গঠন হয়েছে। মঙ্গলবার দেবহাটা রিপোটার্স...