Friday, December 9, 2022
হোম আন্তর্জাতিকশ্রীলঙ্কা সংকটের পেছনে রাশিয়া দায়ী: জেলেনস্কি

শ্রীলঙ্কা সংকটের পেছনে রাশিয়া দায়ী: জেলেনস্কি

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে কৃষিমন্ত্রী এ ধরনের বিবৃতি ভবিষ্যতে আর দেবেন না

বার্তাকক্ষ গত ৭ ডিসেম্বর নয়াপল্টনের ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিবৃতি দেওয়ায় ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে...

ঢাবিতে বিশ্বকাপ খেলা দেখানো ১২ ডিসেম্বর পর্যন্ত স্থগিত

বার্তাকক্ষ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়(ঢাবি) ক্যাম্পাসের তিনটি স্থানে বড় পর্দায় খেলা দেখানো স্থগিত করেছে আয়োজক প্রতিষ্ঠান...

শুরু থেকেই মাঠে নামতে পারেন ডি মারিয়া, বাদ পড়বেন কে?

বার্তাকক্ষ কাতার বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিতর আর্জেন্টিনা শিবিরে গেলে সংবাদমাধ্যমের এখন একটাই জিজ্ঞাসা, স্কালোনি কি নেদারল্যান্ডসের...

ব্রাজিলে এখন একটাই চাওয়া, ‘হেক্সা বিশ্বকাপ’

বার্তাকক্ষ ব্রাজিল ফুটবল দলে পুরোনো ছন্দ কিছুটা হলেও ফিরে এসেছে। কিন্তু সেটি কি বিশ্বকাপ...

বার্তাকক্ষ
খাদ্যপণ্য ও জ্বালানি সরবরাহ বন্ধ করে দেওয়ায় বিশ্বজুড়ে যে অশান্তি সৃষ্টি হয়েছে তার পেছনে রাশিয়া দায়ী বলে মন্তব্য করেছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। একই সঙ্গে তিনি দ্বীপ রাষ্ট্র শ্রীলঙ্কায় দেখা দেওয়া রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক সঙ্কটের জন্যও মস্কোকে দায়ী করেছেন।
বৃহস্পতিবার (১৪ জুলাই) প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে একথা জানায় এনডিটিভি।
জেলেনস্কি বলেন, ইউক্রেনে আগ্রাসনের জন্য রাশিয়া যে কৌশলগুলো ব্যবহার করেছে তার মধ্যে একটি হল অর্থনৈতিক ধাক্কা দেওয়া। রাশিয়া তার এজেন্ডা বাস্তবায়নের জন্য খাদ্য ও জ্বালানি সরবরাহ শৃঙ্খলে ব্যাঘাত ঘটাচ্ছে। এর ফলে খাদ্য ও জ্বালানি সঙ্কটে ভুগতে দেখা যাচ্ছে বিশ্বের অনেক দেশকে।
দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সিউলে এশিয়ান লিডারশিপ কনফারেন্সে বক্তৃতা দেওয়ার সময় শ্রীলঙ্কার পরিস্থিতি তুলে ধরে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট বলেন, ‌খাদ্য ও জ্বালানির মূল্যবৃদ্ধির মর্মান্তিক ঘটনা সামাজিক বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে। এটা কীভাবে শেষ হবে তা এখনো কেউ জানে না।
২ কোটি ২০ লাখ জনসংখ্যার দ্বীপ রাষ্ট্রটি ১৯৪৮ যুক্তরাজ্য থেকে স্বাধীনতার লাভের পর সবচেয়ে কষ্টদায়ক অর্থনৈতিক দুরবস্থায় পড়েছে। নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের তীব্র ঘাটতি দেখা দিয়েছে। একই সঙ্গে দ্রব্যমূল্য ব্যাপকভাবে বেড়ে গেছে। এছাড়া বিদ্যুতের ঘাটতি চরমে পৌঁছেছে। বিদেশি মুদ্রার অভাবে শ্রীলঙ্কা বিদেশ থেকে গুরুত্বপূর্ণ পণ্য আমদানি করতে পারছে না। দাম পরিশোধ করতে না পারায় জীবন রক্ষাকারী ওষুধ থেকে শুরু করে সিমেন্ট পর্যন্ত সব গুরুত্বপূর্ণ পণ্যের ভয়াবহ সঙ্কট তৈরি হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে শ্রীলঙ্কায় গোতাবায়া রাজাপাকসের গঠন করা সরকার পতনের আন্দোলন শুরু হয়। আন্দোলন সহিংসতার পর্যায়ে পৌঁছালে পদত্যাগ করতে বাধ্য হন প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসে।
কিন্তু আন্দোলনকারীরা প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসের পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলন করতে থাকেন। এরই মধ্যে শনিবার (৯ জুলাই) আন্দোলনকারীরা প্রেসিডেন্টে ও প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে হামলা চালায়। আন্দোলনকারীদের কাছ থেকে বাঁচতে সে সময় প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে প্রেসিডেন্ট বাসভবন থেকে পালিয়ে নৌবাহিনীর একটি ঘাঁটিতে আশ্রয় নেন। সেখান থেকে মঙ্গলবার (১২ জুলাই) রাতে শ্রীলঙ্কার একটি সামরিক বিমানে পরিবার নিয়ে মালদ্বীপে পালিয়ে যান তিনি। বর্তমানে শ্রীলঙ্কার এ প্রেসিডেন্ট মালদ্বীপ থেকে সিঙ্গাপুরে যাওয়ার চেষ্টা করছেন।
সূত্র: এনডিটিভি

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

মানবাধিকার লঙ্ঘন: রাশিয়া, ইরান, মিয়ানমারের ওপর কানাডার নিষেধাজ্ঞা

বার্তাকক্ষ রাশিয়া, ইরান ও মিয়ানমার সরকারের মানবাধিকার লঙ্ঘনের দায়ে দেশ তিনটির ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি...

যুদ্ধবিমান তৈরিতে ঐক্যবদ্ধ হচ্ছে জাপান, ব্রিটেন ও ইতালি

বার্তাকক্ষ পরবর্তী প্রজন্মের অত্যাধুনিক যুদ্ধবিমান তৈরির জন্য নিজেদের প্রকল্পগুলোকে একীভূত করছে জাপান, ব্রিটেন ও...

মার্কিন নিষেধাজ্ঞায় থাকা চীনা হুয়াওয়ের সঙ্গে সৌদি আরবের চুক্তি

বার্তাকক্ষ চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সৌদি আরব সফরে বেইজিং ও রিয়াদ একাধিক কৌশলগত চুক্তি...