Friday, December 9, 2022
হোম চিত্র বিচিত্র৪ কোটি টাকা ব্যয় করে চেহারা বদলের খেসারত দিচ্ছেন ব্রাজিলিয়ান মডেল

৪ কোটি টাকা ব্যয় করে চেহারা বদলের খেসারত দিচ্ছেন ব্রাজিলিয়ান মডেল

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

স্বল্প বসনা’ ছবি দিয়ে স্বামী-স্ত্রীর ‘স্নায়ুযুদ্ধ’!

বার্তাকক্ষ এ গল্পে দুটি চরিত্র। সম্পর্কে তারা স্বামী-স্ত্রী। তবে তারও আগে চিত্রতারকা; নায়ক-নায়িকা। দুজনেই...

মোরেলগঞ্জে মিথ্যা মামলায় হয়রানীর প্রতিবাদে মানববন্ধন

মোরেলগঞ্জ সংবাদদাতা বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে মিথ্যা মামলায় হয়রানী থেকে বাঁচার জন্য মানবন্ধন করেছেন ভূক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা।...

দুরারোগ্য রোগে আক্রান্ত ‘টাইটানিক’ গায়িকা

বার্তাকক্ষ পাঁচবার গ্র্যামিজয়ী গায়িকা সেলিন ডিয়ন দুরারোগ্য রোগ ‘স্টিফ পারসন সিনড্রোম’-এ আক্রান্ত হয়েছেন। এটি...

মার্কিন নিষেধাজ্ঞায় থাকা চীনা হুয়াওয়ের সঙ্গে সৌদি আরবের চুক্তি

বার্তাকক্ষ চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সৌদি আরব সফরে বেইজিং ও রিয়াদ একাধিক কৌশলগত চুক্তি...

বার্তাকক্ষ
বর্তমান যুগে কসমেটিক সার্জারির ছড়াছড়ি। অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে কেউ পাল্টে ফেলছেন নিজের ঠোঁট, কেউ নাক, কেউ ত্বক, অনেকে আবার মেদ ঝরিয়ে ফেলছেন। কিন্তু ব্রাজিলিয়ান মডেল জেনিফার পামপ্লোনা যা করেছেন তা শুনলে অনেকেরই চোখ কপালে উঠবে। ভার্সেসের এই প্রাক্তন মডেল নিজেকে কিম কার্দাশিয়ানের মতো চেহারার অধিকারী করে তুলতে চেয়েছিলেন। শরীরে অস্ত্রোপচারের জন্য খরচ করেছিলেন ৪ কোটিরও বেশি টাকা। এখন তিনিই নিজের আসল চেহারায় ফিরতে আবার ৯৫ লক্ষ টাকা খরচ করেছেন। ২৯ বছর বয়সী জেনিফার ১২ বছরে ৪০ টিরও বেশি কসমেটিক সার্জারি করেছেন। কিন্তু চেহারার রূপান্তর নিয়ে খুশি ছিলেন না এই মডেল।
জেনিফার জানিয়েছেন, ২০১০ সালে ১৭ বছর বয়সে তার কিমের মতো হওয়ার সাধ হয়। সেই মতো নিজেকে বদলাতে শুরু করেন। সেই সঙ্গে কোটি কোটি টাকা ব্যয় করে শুরু হয় একের পর এক অস্ত্রোপচার।
বিজ্ঞাপন
৪ কোটি টাকা ব্যয়ে একাধিক সার্জারি, ট্রিটমেন্ট ও ইঞ্জেকশনে প্রায় কিম হয়ে ওঠেন তিনি। মোট ৪০টি কসমেটিক প্রক্রিয়ার পর ভোল বদল হয় তার। কার্দাশিয়ানের মতো দেখতে হয়ে যাবার পর তার ইনস্টাগ্রাম ফলোয়ারের সংখ্যা পৌঁছে যায় এক মিলিয়নে। কিন্তু অস্ত্রোপচারে আসক্ত হয়ে যাবার পর জেনিফারের একাধিক শারীরিক সমস্যা শুরু হয়। তিনি নিজে একজন সফল ব্যবসায়ী হলেও রাস্তা ঘাটে লোকে তাকে কিম কার্দাশিয়ান ভাবতে শুরু করে। ধীরে ধীরে ব্যক্তিত্বের সমস্যায় ভুগতে শুরু করেন জেনিফার।
নিজের অস্তিত্ব নিয়ে দ্বন্দে পড়ে যান। খ্যাতির শিখরে উঠতে গিয়ে নিজের ওপর নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন তিনি। নিজের অভিজ্ঞতা বর্ণনা করতে গিয়ে এই ব্রাজিলীয় মডেল জানান, “ডিট্রানজিশন” অস্ত্রোপচারের সময় সাংঘাতিক জটিলতায় ভুগছিলাম, সংক্রমণ শুরু হয়ে যাবার পর তিন দিন ধরে গাল থেকে রক্তপাত হয়েছিল। আমি ভেবেছিলাম আমি বুঝি মারা যাবো, তারপর ভাবলাম আমার জীবন নিয়ে আমি একি করছি?” অবশেষে, বছরের পর বছর মন খারাপ করে থাকার পর জেনিফার নিজের ভুল বুঝতে পেরে নিজের আসল চেহারায় ফিরে আসার সিদ্ধান্ত নেন।
ইস্তাম্বুলের একজন ডাক্তার তাঁকে আসল চেহারায় ফিরে যেতে সাহায্য করেছিলেন। এবার এই সমস্ত কিছু থেকে মুক্তি পেতে চান জেনিফার পামপ্লোনা। এমনকী কসমেটিক সার্জারি নিয়ে বর্তমান প্রজন্মের আসক্তির বিষয়ে সচেতনতা প্রচারেও সামিল হচ্ছেন তিনি ।
সূত্র : tribuneindia.com

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

ইঁদুর মারতে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি, বেতন ১ কোটি ৭০ লাখ টাকা!

ছোট্ট প্রাণী ইঁদুর মানব সভ্যতায় একাধিকবার প্রাসঙ্গিক হয়ে উঠেছে। মহামারী প্লেগ রোগে গোটা পৃথিবীর...

জনাথনের বয়স হলো ১৯০ বছর!

বলছি ‘জনাথন’-এর কথা। না! সে কোনো মানুষের নয়, বলছি অর্ধশত বছরের বেশি সময় ধরে...

বিয়ের আসরেই স্ত্রীকে চুমু দেওয়ায় ‘ডিভোর্স’!

বিয়ের আসর ছেড়ে কনে দৌড়ালেন থানায়। বরের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে ভেঙে দিলেন বিয়ে।...