Thursday, September 29, 2022
হোম খেলাআইসিসিতে গ্রহণযোগ্যতা বাড়ায় এফটিপিতে বেশি ম্যাচ পেয়েছে বাংলাদেশ

আইসিসিতে গ্রহণযোগ্যতা বাড়ায় এফটিপিতে বেশি ম্যাচ পেয়েছে বাংলাদেশ

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

ইউক্রেনের ৪ অঞ্চলকে নিজের সঙ্গে যুক্ত করছে রাশিয়া

বার্তাকক্ষ রাশিয়া আনুষ্ঠানিকভাবে ইউক্রেনের চারটি অঞ্চলকে নিজের সঙ্গে যুক্ত করার ঘোষণা দিয়েছে। শুক্রবার এই অঞ্চলগুলোকে...

রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যার এক বছরে ক্যাম্পে আরও ২৭ খুন

বার্তাকক্ষ কক্সবাজারের আশ্রয় ক্যাম্পে রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যার এক বছর পূর্ণ হলো বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর)।...

মহেশপুরে ৪০ পিচ সোনার বারসহ ১জন আটক

আব্দুস সেলিম, মহেশপুর ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার যাদবপুর সীমান্ত থেকে ৪০ পিচ সোনার বারসহ শওকত আলী...

ডিমের উৎপাদন খরচ ৬ টাকা, দাম কেন ১৩: কৃষিমন্ত্রী

বার্তাকক্ষ ফার্মের মুরগির ডিমের উৎপাদন খরচ ৫ থেকে ৬ টাকা বলে জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী আবদুর রাজ্জাক।...

বার্তাকক্ষ
ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) ২০২৩ থেকে ২০২৭ সাল পর্যন্ত ফিউচার ট্যুর প্রোগ্রাম (এফটিপি) চূড়ান্ত করেছে। এই পাঁচ বছরের চক্রে বাংলাদেশ ৩৪ টেস্ট, ৫৯ ওয়ানডে ও ৫১ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে। উল্লেখযোগ্য হারে ম্যাচ বাড়ার পেছনে আইসিসিতে বাংলাদেশ ক্রিকেটের গ্রহণযোগ্যতা বৃদ্ধি এবং ক্রিকেটীয় দেশগুলোর ভাবনা বদলই কারণ কি না জানতে চাওয়া হয় বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের কাছে।
এ প্রশ্নে মঙ্গলবার বিসিবির সাধারণ সভা শেষে নাজমুল হাসান পাপন বলেছেন, ‘অবশ্যই। আইসিসিতে বাংলাদেশ এখন একটা গুরুত্বপূর্ণ দেশ হিসেবেই গণ্য হয়। তবে এর পেছনে কিন্তু বোর্ড নয়, দলের পারফরম্যান্সই মূল। বাংলাদেশের ক্রিকেট যেহেতু এখন ভালো করছে, সেজন্যই সবাই আগ্রহ প্রকাশ করছে।’
২০২৩-২০২৭ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বাংলাদেশের থেকে কেবল বেশি ম্যাচ পাচ্ছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সব সংস্করণ মিলিয়ে বাংলাদেশের ম্যাচ ১৪৪টি। ওয়েস্ট ইন্ডিজ খেলবে ১৪৬টি। বলার অপেক্ষা রাখে না, সামনের দিনগুলোতে মাঠে কঠিন সময় কাটাতে হবে বাংলাদেশকে। অতীতে এফটিপিতে বাংলাদেশ কখনোই এতো ম্যাচ পায়নি।
সাদা পোশাকে ৩৪ ম্যাচ পেয়েছে বাংলাদেশ। যা আগের চক্রের থেকে ৪টি বেশি। এর ভেতরে বাংলাদেশ অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা সফরও করবে। বাংলাদেশে খেলতে আসবে ইংল্যান্ড, পাকিস্তান। পাঁচ বছরে বাংলাদেশের থেকে বেশি টেস্ট খেলবে ইংল্যান্ড (৪২), অস্ট্রেলিয়া (৪১) ও ভারত (৩৮)। তবে ওয়ানডে বাংলাদেশই সবচেয়ে বেশি খেলবে। বাংলাদেশের ৫৯ ম্যাচের পর শ্রীলঙ্কা খেলবে ৫৮ ম্যাচ। এছাড়া বাকি সবগুলো দল ৫০ এর নিচে ম্যাচ খেলবে।
চলমান এফটিপিতে বাংলাদেশ ৩০টির মধ্যে ২৮টি টেস্ট ম্যাচ খেলেছে। বাকি দুটি ম্যাচ খেলবে নভেম্বর-ডিসেম্বরে ভারতের বিপক্ষে। সামনের টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ চক্রেও বাংলাদেশের ঘরের মাঠে বড় দলগুলোর বিপক্ষে খেলা রয়েছে। ভারত, পাকিস্তান, ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফর বাদে নিউ জিল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা ও শ্রীলঙ্কাকে আতিথেয়তা দেবে।
দ্বিপাক্ষিক সিরিজে ম্যাচ বাড়ার কারণ জানাতে গিয়ে নাজমুল হাসান বলেছেন, ‘আগে সবাই আমাদের এখানে এসে খেলতে চাইতো। বাইরে আমাদেরকে নিতে চাইতো না। ওরা মনে করতো ওদের দেশের দর্শকরা খেলা দেখবে না। এখন সব ওদের দেশেই ডাকছে। তো এটা ভালো দিক। আমরাও শিখতে পারবো। এটা একটা শেখার ধাপ হতে চলেছে। কারণ আমরা তো কখনও এত খেলা খেলিনি বাইরে গিয়ে। তো আমার মনে হয় এটা আমাদের জন্য ভালো।’

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

রানের বৃষ্টিতে রিজওয়ানের বিশ্ব রেকর্ড

বার্তাকক্ষ বাবর আজম মাত্র ৯ রান করে ফিরলেন। ওপেনিংয়ে ধাক্কা খেলো পাকিস্তান। কোনও সমস্যা নেই,...

সাফজয়ী নারী ফুটবলার মাসুরা পারভীন এখন সাতক্ষীরায়

আব্দুল আলিম, সাতক্ষীরা সাফ জয়ের পর প্রথমবারের মতো সাতক্ষীরায় এলেন নারী ফুটবল দলের অন্যতম ডিফেন্ডার...

বিশ্বকাপের আগে বড় ধাক্কা ভারতের, ছিটকে গেলেন বুমরাহ!

বার্তাকক্ষ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলতে যাওয়ার আগেই বিরাট ধাক্কা খেল ভারত। বিশ্বকাপে খেলতে পারবেন না জাসপ্রিত...