Sunday, September 25, 2022
হোম আজকের পত্রিকাসড়ক যেন মৃত্যুপুরী

সড়ক যেন মৃত্যুপুরী

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

জ্বালানির খোঁজে উপসাগরীয় দেশগুলোতে জার্মান চ্যান্সেলর

বার্তাকক্ষ উপসাগরীয় দেশেগুলোতে সফরের প্রথম দিনে সৌদির ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে বৈঠক করেন...

আফিফের দুর্দান্ত হাফ সেঞ্চুরি, লড়াকু স্কোরের পথে বাংলাদেশ

বার্তাকক্ষ টি-টোয়েন্টি তরুণদের খেলা। প্রায় প্রতিটি দলই তারুণ্যের জয়োগান দিয়ে বিশ্বকাপের জন্য দল ঘোষণা করেছে।...

দোয়েল ল্যাপটপ তৈরির সঙ্গে জড়িতদের শাস্তি চান মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী

বার্তাকক্ষ দোয়েল ল্যাপটপ তৈরির প্রকল্প ব্যর্থ হয়েছে। এ কারণে এর সঙ্গে জড়িতদের শাস্তি চেয়েছেন ডাক...

শেয়ারবাজারে ‘মার্কেট মেকার’ সনদ চায় সাকিবের মোনার্ক হোল্ডিংস

বার্তাকক্ষ শেয়ারবাজারকে সাপোর্ট দিতে বাজার সৃষ্টিকারী বা মার্কেট মেকার হতে চায় বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল...

সড়ক যেন মৃত্যুপুরী। কোনোভাবেই থামছে না মৃত্যুর মিছিল। গত শনিবার দেশের বিভিন্ন স্থানে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন অন্তত ৩৪ জন। আহত হয়েছেন অর্ধশতাধিক। টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে দুটি দুর্ঘটনায় মা ও ছেলেমেয়েসহ সাতজনের মৃত্যু হয়েছে। একই দিন বগুড়ায় তিনটি দুর্ঘটনায় বাবা-ছেলেসহ ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। ময়মনসিংহের ত্রিশালে রাস্তা পারাপারের সময় স্বামী, অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী ও তাদের শিশুকন্যা নিহত হয়েছে। তবে এ ঘটনায় মা মারা যাওয়ার আগে প্রসব হওয়া নবজাতক বেঁচে আছে। এর আগের দিন শুক্রবার বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় শিক্ষার্থীসহ ১৪ জন নিহত হন। প্রতি বছর ১২ হাজারেরও বেশি মানুষ প্রাণ হারান সড়কে। এই নীরব হত্যাকা-ের জন্য কাউকে খুব একটা কৈফিয়ত দিতে হয় না। প্রতিদিন খবরের কাগজে এমন মর্মান্তিক ঘটনা দেখছি। এমন ঘটনা দেখতে দেখতে যেন অভ্যস্ত হয়ে গেছি। স্বাভাবিক বিষয় বলে মেনে নিচ্ছি। কিন্তু কিছু ঘটনা খুব নাড়া দেয়। সড়ক দুর্ঘটনা গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (এআরআই) গবেষণায় দেখা গেছে, ৫৩ শতাংশ দুর্ঘটনার জন্য দায়ী যানবাহনের বেপরোয়া গতি। কিন্তু গতি নিয়ন্ত্রণ, মহাসড়কে ছোট যানবাহন বন্ধ ও বেপরোয়া যানবাহন চলাচল বন্ধে সাফল্য নেই। এখনো দেশের সড়ক-মহাসড়কে দাবড়িয়ে বেড়াচ্ছে ১০ লাখ নছিমন-করিমন-ইজিবাইক। অবাধে আমদানি হচ্ছে অটোরিকশা, ব্যাটারিচালিত রিকশা, ইজিবাইক। দেশব্যাপী অন্তত ৫ লাখ ফিটনেসবিহীন বাস, ট্রাক, কাভার্ডভ্যান, হিউম্যান হলার অবাধে চলছে। নিবন্ধনবিহীন কয়েক লাখ অটোরিকশা ও মোটরসাইকেল চলাচল করছে সড়ক-মহাসড়কে। এসব যানবাহন সড়ক দুর্ঘটনার প্রধান উৎস। দুর্ঘটনায় দায়ীদের শাস্তির নজিরও তেমন নেই। যার ফলে চালকরা ইচ্ছামতো গাড়ি চালান। হাই রিস্ক নিয়ে ওভারটেক করেন। এছাড়া চালকদের প্রশিক্ষণের অভাব রয়েছে, যা সড়ক দুর্ঘটনার অন্যতম কারণ। ফুটপাত দিয়ে মানুষ চলাচলের অবস্থা নেই। কাজেই মানুষ বাধ্য হয়ে মূল রাস্তায় হাঁটছে এবং দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে। বাসে সিট বেল্ট বাঁধার ব্যবস্থা, হেলমেটের ব্যবহার কম থাকায় ছোটখাটো দুর্ঘটনাতেও প্রাণহানি ঘটছে। ইদানীং মোবাইল ফোন কানে রেখে গাড়ি চালানো যেন ফ্যাশন অনেক চালকের কাছে। যদিও এ কাজ থেকে বিরত রাখতে আইন আছে। কিন্তু সে আইনের ব্যবহার হয় না। এ কারণেও দুর্ঘটনা ঘটছে। দুর্ঘটনার জন্য যা-ই দায়ী হোক না কেন, দুর্ঘটনা প্রতিরোধ করতে হবে। আমরা সড়ক নিরাপত্তায় সরকারের সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনার বাস্তবায়ন দেখতে চাই। সড়কে মৃত্যুর মিছিল আর যেন দীর্ঘ না হয়। আইনের কঠোর প্রয়োগ নিশ্চিত করতে হবে। সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিরোধে দায়ীদের উপযুক্ত শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে।

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

ঝিনাইদহে ন্যাপের জেলা প্রতিনিধি সম্মেলন , বিধান সভাপতি ও পাভেল সাধারণ সম্পাদক

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি : ঝিনাইদহে ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি (ন্যাপ)’র প্রতিনিধি সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে । ‘ধর্ম কর্ম...

শ্যামনগরে গলায় দড়ি দিয়ে ৩ সন্তানের জনকের আত্মহত্যা

আলমগীর হায়দার, শ্যামনগর : সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার রমজাননগর ইউনিয়নের মানিকখালী গ্রামে পরিমল মন্ডল (৩২) নামের...

সরকার সব ধর্মের চেতনা ও মূল্যবোধ সমুন্নত রাখতে বদ্ধপরিকর: এমপি রণজিৎ রায়

বাঘারপাড়া প্রতিনিধি : যশোর-৪ আসনের সংসদ সদস্য রণজিৎ কুমার রায় বলেছেন, বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ।...