Friday, October 7, 2022
হোম শহর-গ্রামতালায় উন্নয়ন প্রচেষ্টার পরিবেশবান্ধব মৃৎশিল্প কেন্দ্র পরিদর্শনে বিশ^ ব্যাংকের প্রতিনিধি দল

তালায় উন্নয়ন প্রচেষ্টার পরিবেশবান্ধব মৃৎশিল্প কেন্দ্র পরিদর্শনে বিশ^ ব্যাংকের প্রতিনিধি দল

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

আজ সব ভুল ক্ষমা করে সুখ উদযাপনের দিন

বার্তাকক্ষ ক্ষমা করা একটি মহৎ গুণ। কাউকে ক্ষমা করার মাঝেও কিন্তু সুখ থাকে। ৭ অক্টোবর...

হাসলেই কমবে ব্যথা, বাড়বে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা

বার্তাকক্ষ হাসলে মন ভালো থাকে, এ কথা সবারই জানা। তবে জানলে অবাক হবেন, হাসলে শুধু...

হেঁটেই হার্ট অ্যাটাক-ক্যানসারের ঝুঁকি কমাবেন যেভাবে

বার্তাকক্ষ শারীরিকি বিভিন্ন জটিল রোগের মধ্যে হার্ট অ্যাটাক, ক্যানসার কিংবা ডিমনেশিয়া অন্যতম। যদিও ভুল জীবনধারার...

স্মার্ট টিভি ব্যবহারে যেসব সতর্কতা মানতে হবে

বার্তাকক্ষ মাঝে মাঝেই বিভিন্ন জায়গায় স্মার্টফোন, হেডফোন এমনকি টিভি বিস্ফোরণের খবরও শোনা যায়। অনেক সময়...

তালা (সাতক্ষীরা) সংবাদদাতা ॥
সাতক্ষীরার তালায় উন্নয়ন প্রচেষ্টার সাসটেইনেবল এন্টারপ্রাইজ প্রজেক্ট (এসইপি)-এঁর মাঠ পর্যায়ের কার্যক্রম পরিদর্শন করেছে বিশ্ব ব্যাংকের একটি প্রতিনিধি দল। রোববার (২১ আগস্ট) সকালে তালার মাঝিয়াড়ায় অবস্থিত পরিবেশবান্ধব মৃৎশিল্প কেন্দ্রটি পরিদর্শন করেন।
এসময় বিশ^ ব্যাংকের প্রতিনিধি দলে সিনিয়র এনভায়র্নমেন্টাল স্পেশালিস্ট ও টাস্ক টিম লিডার উন জু এলিসনের নেতৃত্বে ৬ সদস্যের দলটি পরিবেশবান্ধব মৃৎশিল্প কেন্দ্রটি ঘুরে দেখেন। পরিদর্শনকালে পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশনের উপ-মহাব্যবস্থাপক ও এসইপি প্রকল্প সমন্বয়কারী জহির উদ্দিন আহম্মদ, উন্নয়ন প্রচেষ্টার নির্বাহী পরিচালক সেখ ইয়াকুব আলীসহ প্রতিষ্ঠানের অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে শনিবার (২০ আগস্ট) সকালে বিশ্বব্যাংকের প্রতিনিধিরা তালা উপজেলার জেয়ালা গ্রামের ঘোষ পাড়ায় পরিবেশসম্মত ও নিরাপদ গাভিপালন, দুগ্ধজাত পণ্য উৎপাদন, উন্নয়ন প্রচেষ্টা কর্তৃক স্থাপিত কমিউনিটি ভিত্তিক গোবর সংগ্রহ কেন্দ্র, ড্রেনেজ সিস্টেম, গোবর থেকে পরিবেশগতভাবে নিরাপদ গোবর সার (ভার্মি কম্পোস্ট) ও ্ট্রাইকো কম্পোস্ট তৈরির কারখানা পরিদর্শন করেন। পরিদর্শন শেষে ঘোষ পাড়ার শতাধিক খামারি ও সংশ্লিষ্ট অন্যান্য ব্যবসায়ীদের সাথে মতবিনিময় করেন।
বিকালে দলটি পাইকগাছার বোয়ালিয়ায় মৃৎশিল্পীদের কার্যক্রম ঘুরে দেখেন। এছাড়াও তারা প্রকল্পের আওতায় গঠিত পরিবেশ ক্লাবের সদস্যদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। পরিদর্শন শেষে বর্জ্য বস্থাপনা ও পরিবেশগতভাবে নিরাপদ পণ্য উৎপাদনে স্থানীয় খামারিদের প্রশংসা করেন বিশ্বব্যাংক ও পিকেএসএফ-এর প্রতিনিধি দল।
এ বিষয়ে পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশনের উপ-মহাব্যবস্থাপক ও এসইপি প্রকল্প সমন্বয়কারী জহির উদ্দিন আহম্মদ বলেন, “ক্ষুদ্র-উদ্যোগসমূহে বর্জ্য ব্যবস্থাপনার ধারণা এক রকমের অনুপস্থিত ছিলো। অথচ বাংলাদেশের মোট জিডিপি’র প্রায় ২৫ শতাংশের যোগান দেয় এই খাত। তাই এসইপি-এর আওতায় আমরা টেকসই বর্জ্য ব্যবস্থাপনার ধারণা যুক্ত করেছি। আর এই বিষয়ে উন্নয়ন প্রচেষ্টা জেয়ালা গ্রামকে একটি উদাহরণ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছে”।
উল্লেখ্য, বাংলাদেশ সরকারের সহায়তায় এবং বিশ্বব্যাংক ও পিকেএসএফ-এর যৌথ অর্থায়নে বাস্তবায়িত হচ্ছে পাঁচ বছর মেয়াদী সাসটেইনেবল এন্টারপ্রাইজ প্রজেক্ট (এসইপি)। প্রকল্পটির আওতায় দেশব্যাপী ৩০টি ব্যবসা উপখাতের আওতায় ৬৪টি উপ-প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে ৪৭টি বেসরকারি উন্নয়ন প্রতিষ্ঠান। ক্ষুদ্র-উদ্যোগসমূহে পরিবেশগতভাবে টেকসই চর্চা বৃদ্ধি করার জন্য ৫০ হাজারেরও অধিক ক্ষুদ্র-উদ্যোগে বিভিন্ন আর্থিক ও কারিগরি সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে এই প্রকল্পের মাধ্যমে।

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

চোখ ওঠা রোগের প্রাদুর্ভাব: সাতক্ষীরায় আক্রান্তদের মধ্যে শিশুর সংখ্যা বেশি

আব্দুল আলিম, সাতক্ষীরা সাতক্ষীরায় দিন দিন বাড়ছে চোখ ওঠা বা চোখের প্রদাহ রোগী। জেলার প্রত্যেক...

পরকীয়ার অভিযোগে স্বামীর মামলা স্ত্রীর দাবি নির্যাতনে ঘরছাড়া

চিতলমারী সংবাদদাতা বাগেরহাটের চিতলমারীতে পরকীয়া ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ এনে গৃহবধূর নামে মামলা দায়ের করেছেন...

মোংলায় বাড়ি থেকে তক্ষত সাপ উদ্ধার

মোংলা সংবাদদাতা মোংলা উপজেলার মিঠাখালী ইউনিয়নের নিলুফা বেগমের বসতবাড়ির কাঠের ঘর থেকে ৯ ইঞ্চি লম্বা...