Friday, September 30, 2022
হোম আন্তর্জাতিকবৃটেনের সবথেকে বড় কন্টেইনার বন্দরে কর্মীদের ধর্মঘট

বৃটেনের সবথেকে বড় কন্টেইনার বন্দরে কর্মীদের ধর্মঘট

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

চাকরির নামে ভুয়া কাগজপত্র তৈরী করায় ৩ জন গ্রেফতার

শাহিনুর রহমান, পাটকেলঘাটা পাটকেলঘাটায় কোয়েষ্ঠ ফার্মা নামে একটি কোম্পানিতে চাকরি দেয়ার নাম করে ভুয়া কাগজপত্র...

মাত্র দু বছরে মৃত্যুর মুখে নদী : খরস্রোতা শোলমারি এখন ৩-৪ মিটারের সরু নালা

খুলনা সংবাদদাতা খুলনার বটিয়াঘাটা উপজেলার বুক চিরে বয়ে গেছে শোলমারি নদী। এর স্রোত ও গভীরতা...

জনগণের ক্ষমতায়নের জন্য দুর্নীতি দূর করতে হবে : বিভাগীয় কমিশনার

খুলনা সংবাদদাতা ‘তথ্য প্রযুক্তির যুগে জনগণের তথ্য অধিকার নিশ্চিত হোক’ এই প্রতিপাদ্য নিয়ে বৃহস্পতিবার (২৯...

তালায় দুধে ভেজাল প্রতিরোধ শীর্ষক আলোচনা

শিরিনা সুলতানা, তালা : সাতক্ষীরার তালায় সামাজিক সম্প্রীতি ও দুধে ভেজাল প্রতিরোধ শীর্ষক আলোচনা সভা...

বার্তাকক্ষ
বৃটেনের সবথেকে বড় কন্টেইনার বন্দর ফেলিক্সস্টো’র প্রায় ২ হাজার কর্মী ধর্মঘট পালন করছেন। ইংল্যান্ডের পূর্ব উপকূলে অবস্থিত বন্দরটি এতে থমকে আছে। ‘দ্য ইউনাইট’ ইউনিয়ন সদস্যদের ডাকা এই ধর্মঘটে যোগ দিয়েছেন ক্রেন ও টাগ বোট অপারেটিভরাও। মূলত দেশে ক্রমবর্ধমান মূল্যস্ফীতি ও জীবনযাত্রার ব্যয় বৃদ্ধির মধ্যে বেতন বাড়ানোর দাবিতে ধর্মঘট করছেন তারা।
ওয়ার্ল্ড সোশ্যালিস্ট ওয়েবসাইটের এক রিপোর্টে জানানো হয়েছে, বৃটেনের ৪৮ শতাংশ কন্টেইনার এই বন্দর দিয়েই পরিচালিত হয়। বছরে ২ হাজার জাহাজ থেকে ৪০ লাখের বেশি কন্টেইনার খালাস করা হয় এই বন্দর থেকে। ফলে এই ধর্মঘট ইংল্যান্ডকে অস্থির করে তুলতে পারে। পাশাপাশি দেশটিতে চলছে রেলওয়ে কর্মী ধর্মঘট। সেখানে প্রতি পাঁচটি ট্রেনের মধ্যে মাত্র একটি করে ট্রেন চলাচল করছে। দেশটির পোস্টাল কর্মীরাও চলতি মাসের শেষের দিকে চার দিনের ধর্মঘটের পরিকল্পনা করছেন। টেলিকম প্রতিষ্ঠান বিটিও সম্প্রতি কয়েক দশকের মধ্যে প্রথমবারের মতো কর্মবিরতি পরিস্থিতির মুখোমুখি হয়েছে।
অ্যামাজনের গুদামের কর্মী, আইনজীবী, পরিচ্ছন্নতাকর্মীদেরও সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে কর্মবিরতি পালন করতে দেখা গেছে।
সেখানকার কর্মীরা জানিয়েছেন, তারা ১০ শতাংশ বেতন বৃদ্ধি চান। যদিও এখন আর ১০ শতাংশও যথেষ্ট নয়, কারণ মূল্যস্ফীতি ১২ শতাংশ ছাড়িয়েছে। তাদেরকে ৭ শতাংশ বেতন বৃদ্ধির প্রস্তাব দেয়া হয়েছে। যদিও শ্রমিকদের মধ্যে অসন্তোষ আরও অন্য ইস্যু নিয়েও। অনেকেই অভিযোগ করেছেন, মহামারির মধ্যে তাদের নিরাপত্তাকে উপেক্ষা করা হয়েছে। ভাইরাস থেকে বাঁচার জন্য কোনো সুরক্ষা ছাড়াই তাদের কাজ করতে হয়েছে। এ জন্য কোনো অতিরিক্ত অর্থও দেয়া হয়নি তাদের।
ফেলিক্সস্টোওয়ের কর্মীদের প্রতিনিধিত্বকারী সংগঠন ইউনাইট ইউনিয়নের ডকে নিয়োজিত সরকারি কর্মকর্তা ববি মর্টন বলেন, ধর্মঘটের কারণে কাজে ব্যাপক বিঘ্ন ঘটবে এবং তা ইংল্যান্ডজুড়ে সরবরাহ শৃঙ্খলে বড় ধরনের চাপ তৈরি করবে। তবে যে বিরোধ তৈরি হয়েছে, তা পুরোপুরিভাবে কোম্পানিরই তৈরি করা। অনেক শ্রমিক অভিযোগ করেন, তাদেরকে বছরে ২৫ হাজার পাউন্ড হিসেবে ভাড়া করা হয়েছে। অথচ এই অর্থ একই ধরণের অন্য চাকরির তুলনায় অনেক কম।

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

ইউক্রেনের ৪ অঞ্চলকে নিজের সঙ্গে যুক্ত করছে রাশিয়া

বার্তাকক্ষ রাশিয়া আনুষ্ঠানিকভাবে ইউক্রেনের চারটি অঞ্চলকে নিজের সঙ্গে যুক্ত করার ঘোষণা দিয়েছে। শুক্রবার এই অঞ্চলগুলোকে...

রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যার এক বছরে ক্যাম্পে আরও ২৭ খুন

বার্তাকক্ষ কক্সবাজারের আশ্রয় ক্যাম্পে রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যার এক বছর পূর্ণ হলো বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর)।...

মহেশপুরে ৪০ পিচ সোনার বারসহ ১জন আটক

আব্দুস সেলিম, মহেশপুর ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার যাদবপুর সীমান্ত থেকে ৪০ পিচ সোনার বারসহ শওকত আলী...