Tuesday, September 27, 2022
হোম আজকের পত্রিকা৮ নদীর পানিবণ্টন : তিস্তা গুরুত্ব পাক

৮ নদীর পানিবণ্টন : তিস্তা গুরুত্ব পাক

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

শিক্ষা কার্যক্রমের জন্য নীতিমালা করছে ইউজিসি

বার্তাকক্ষ দেশে নতুন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের পর অনুমোদন ছাড়া শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করার বিষয়ে একটি...

সামাজিক মাধ্যম ব্যবহারে প্রাথমিক শিক্ষকদের জন্য ৮ নির্দেশনা

বার্তাকক্ষ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারে প্রাথমিকের সব কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং শিক্ষকদের সতর্ক করেছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর (ডিপিই)।...

শাওমি এবার বর্ষসেরা উদ্ভাবনী কোম্পানির তালিকায়

বার্তাকক্ষ শাওমি এবার বছরের সেরা ৫০ উদ্ভাবনী কোম্পানির তালিকায় স্থান পেয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের বোস্টন কনসালটিং গ্রুপ...

গ্রামীণফোনের কিছু সেবা পেতে সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন

বার্তাকক্ষ কারিগরি উন্নয়নের জন্য গ্রামীণফোনের কিছু সেবা পেতে গ্রাহকদের সমস্যা হতে পারে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।...

অভিন্ন নদীর পানিবণ্টন বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে এক দীর্ঘমেয়াদি অমীমাংসিত ইস্যু। দুই দেশের মধ্যে ১৯৯৬ সালে একমাত্র গঙ্গা নদীর পানিবণ্টনের চুক্তি স্বাক্ষর হলেও তিস্তাসহ আলোচনায় থাকা ৮টি নদীর পানি ভাগাভাগির ব্যাপারে এখনো কোনো সুরাহা হয়নি। গঙ্গা চুক্তির পর আলোচনায় সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব পায় তিস্তা নদীর পানি ভাগাভাগির ব্যাপারটি। ২০১১ সালে দুই দেশের মধ্যে তিস্তা চুক্তি স্বাক্ষরের ব্যাপারে সব প্রস্তুতি নেয়া হলেও পশ্চিমবঙ্গ সরকারের বিরোধিতায় তা সম্পন্ন করা যায়নি। আন্তর্জাতিক নদী হিসেবে ন্যায্য হিস্যা পাওয়ার অধিকার থাকলেও শুকনো মৌসুমে তিস্তার পুরো পানিই ব্যবহার করছে ভারত। তিস্তার পানিবণ্টন চুক্তিসহ ভারত ও বাংলাদেশের অন্য অমীমাংসিত বিষয়গুলোর দ্রুত সমাধান হবে বলে আশা প্রকাশ করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সূত্র ধরে গতকাল ভোরের কাগজের প্রধান প্রতিবেদনে বলা হয়, নতুন করে আরো ৮টি নদীর পানি ভাগাভাগি করতে আলোচনায় সম্মত হয়েছে বাংলাদেশ ও ভারত। এই ৮টি নদী হচ্ছে- সোনাই, বরদাল, মহানন্দা, হাওড়া, সোমেশ্বরী, যাদুকাটা ও ধলা। সদ্য সমাপ্ত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নয়াদিল্লি সফরে তা উত্থাপিত হলে দুই দেশের মধ্যে এই ৮টি নদীর পানি ভাগাভাগি নিয়ে আলোচনায় রাজি হয় প্রতিবেশী দেশ দুটি। এর ফলে এখন এই ৮টি নদীর পানির বিষয়ে কারিগরি দিক খতিয়ে দেখে পর্যাপ্ত তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করে দুই দেশ নদীগুলোর পানি ভাগাভাগি নিয়ে চুক্তি করবে। বিগত বছরগুলোতে বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্কের ক্ষেত্রে আমূল পরিবর্তন এসেছে। গত ১০ বছরেরও বেশি সময়ে দুদেশের মধ্যে বহুল প্রত্যাশিত বিভিন্ন চুক্তির ফলে সম্পর্কের উচ্চতা ক্রমাগত বেড়েছে। ভবিষ্যতে ভারতের সঙ্গে অমীমাংসিত ইস্যুগুলোর সৌহার্দপূর্ণ সমাধান, নতুন আরো চুক্তি স্বাক্ষরসহ ঢাকা-দিল্লির ঐতিহাসিক বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক নতুন উচ্চতায় পৌঁছাবে বলে আমরা প্রত্যাশা রাখছি। খুব স্বাভাবিকভাবেই তিস্তা নদীর পানিবণ্টন নিয়ে প্রশ্ন আসছে বারবার। ভারতের চাওয়াগুলোর বেশিরভাগ পূরণ হলেও বাংলাদেশের কিছু অপ্রাপ্তি রয়ে গেছে। উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের পানির গুরুত্বপূর্ণ উৎস তিস্তা নদীর পানিবণ্টন চুক্তির অনিশ্চয়তা দূর হয়নি। এক দীর্ঘসূত্রতার পাকে পড়ে গেছে এটি। রাজনৈতিক কারণেই তিস্তা চুক্তিকে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। তিস্তার পানি ভারতের একতরফাভাবে আটকে দেয়া আন্তর্জাতিক আইনের স্পষ্ট লঙ্ঘন। আর তিস্তার পানির ন্যায্য হিস্যা আমাদের কাছে করুণা নয় বরং অধিকার। এ অধিকার থেকে আমাদের আর কতদিন বঞ্চিত রাখবেন? ভারতের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও বাংলাদেশের বর্তমান সরকারপ্রধান শেখ হাসিনার আন্তরিক প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ ও ভারতের দীর্ঘদিনের অমীমাংসিত অনেক সমস্যার শান্তিপূর্ণ সমাধান হয়েছে। বিশেষ করে স্থলসীমান্ত ও সমুদ্র সীমানার মতো জটিল বিষয়গুলো বন্ধুত্বপূর্ণ পরিবেশে সুষ্ঠু সমাধানের মাধ্যমে বাংলাদেশ ও ভারত প্রতিবেশী রাষ্ট্রের সম্পর্কের ক্ষেত্রে বিশ্বে নতুন দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। দুদেশের জনগণের প্রত্যাশা- তিস্তা চুক্তি সম্পাদনসহ অমীমাংসিত অন্য বিষয়গুলোরও দ্রুত সমাধান হবে। পারস্পরিক সম্মানের ভিত্তিতে দেশ দুটির মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক অটুট থাকুক। দুদেশের মধ্যে অর্থনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক তথা সব ধরনের যোগাযোগ ও সহযোগিতা ক্রমেই জোরদার হোক- এমন প্রত্যাশা করছি।

 

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

সাপের কামড়ে যুবকের মৃত্যু

হুমায়ুন কবির, কালীগঞ্জ : ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার কোলা ইউনিয়নে সাপের কামড়ে সুব্রত কুমার (২১) নামে...

অভয়নগরে কাঠ পুড়িয়ে কয়লা তৈরি আরো ৪৩টি চুল্লি গুঁড়িয়ে দিল প্রশাসন

নিজস্ব প্রতিবেদক, অভয়নগর : অভয়নগরে কাঠ পুড়িয়ে কয়লা তৈরি ও পরিবেশ দূষণ করায় আরো ৪৩টি...

খানা-খন্দে ভরা যশোর-খুলনা মহাসড়কে রক্তের দাগ শুকাচ্ছেনা হারুন-অর-রশীদ, অভয়নগর : যশোর-খুলনা মহাসড়কের অভয়নগরের ৮ কিলোমিটার অংশের...