Tuesday, September 27, 2022
হোম আইন আদালত২৭ দিন ধরে নিখোঁজ নারী, মামলা তদন্তের দায়িত্বে পিবিআই

২৭ দিন ধরে নিখোঁজ নারী, মামলা তদন্তের দায়িত্বে পিবিআই

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

বাংলাদেশের কাছে এডিবির পাওনা ১১.৬৯ বিলিয়ন ডলার : অর্থমন্ত্রী

বার্তাকক্ষ অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, গত ৫১ বছরে বাংলাদেশ কখনই দেশি-বিদেশি ঋণ...

শিক্ষার্থীদের পার্টটাইম চাকরির সুযোগ দেবে জবি

বার্তাকক্ষ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি): শিক্ষার্থীদের পার্টটাইম চাকরির সুযোগ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি)...

শ্রমিকদের নিরাপত্তা ছাড়াই শাবিপ্রবিতে চলছে নির্মাণ কাজ!

বার্তাকক্ষ বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবিপ্রবি) চলছে কয়েকটি বহুতল ভবনের নির্মাণের কাজ। এসব ভবনে কাজ করছেন শতাধিক নির্মাণ...

নতুন সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষা কার্যক্রমে নীতিমালা করছে ইউজিসি

বার্তাকক্ষ দেশে নতুন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের পর শিক্ষা কার্যক্রম শুরুর বিষয়ে নীতিমালা করছে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয়...

খুলনা প্রতিনিধি
খুলনার দৌলতপুর মহেশ্বরপাশা বণিকপাড়া থেকে নিখোঁজ রহিমা খাতুনের (৫৫) সন্ধান ২৭ দিনেও মেলেনি। এ ঘটনায় করা মামলার বাদীর আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। গত ১৭ সেপ্টেম্বর দৌলতপুর থানা থেকে মামলাটি পিবিআইতে স্থানান্তর করা হয়।
পিবিআই খুলনার পুলিশ সুপার সৈয়দ মুশফিকুর রহমান জানান, ১৪ সেপ্টেম্বর মামলাটি পিবিআইতে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত। এরপর প্রক্রিয়া মেনে ১৭ সেপ্টেম্বর নথিপত্র বুঝে নেয় পিবিআই। এখন এই মামলা তদন্ত করছেন পিবিআই পরিদর্শক আব্দুল মান্নান। এ পর্যন্ত পুলিশ ও র‌্যাব যৌথ অভিযান চালিয়ে সন্দেহভাজন ছয় জনকে গ্রেফতার করেছে। তাদের রিমান্ডে নেওয়ার জন্য আদালতে আবেদন করা হয়েছে। আদালতে বিষয়টি শুনানির অপেক্ষায় রয়েছে।
দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম জানান, গৃহবধূ রহিমা খাতুন নিখোঁজের ঘটনায় তার স্বামী হেলাল হাওলাদারসহ ছয় জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ও র‍্যাব। তারা হলেন—খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুয়েট) প্রধান প্রকৌশল কার্যালয়ের সহকারী প্রকৌশলী গোলাম কিবরিয়া, রহিমা খাতুনের দ্বিতীয় স্বামী হেলাল হাওলাদার, দৌলতপুর মহেশ্বরপশা বণিকপাড়া এলাকার মহিউদ্দিন, পলাশ ও জুয়েল এবং হেলাল শরীফ।
রহিমা খাতুনের মেয়ে মরিয়ম মান্নান বলেন, ‘২৭ দিন অতিবাহিত হলেও আমার মায়ের সন্ধান মেলেনি। মাকে ফিরে পেতে সকলের দোয়া কামনা করছি।’
উল্লেখ্য, গত ২৭ আগস্ট রাত সাড়ে ১০টার দিকে পানি আনতে বাড়ি থেকে নিচে নামেন রহিমা খাতুন। ঘণ্টা পার হলেও তিনি বাসায় ফিরে আসেননি। পরে মায়ের খোঁজে সন্তানরা নিচে নেমে ব্যবহৃত স্যান্ডেল, গায়ের ওড়না ও কলস রাস্তার ওপর পড়ে থাকতে দেখেন। রাতে সম্ভাব্য সব স্থানে খুঁজেও না পেয়ে থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। পরে কয়েকজনের নাম উল্লেখ করে দৌলতপুর থানায় মামলা করেন।

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

মুন্সিগঞ্জে সংঘর্ষ : বিএনপির ৩ শতাধিক নেতাকর্মীর জামিন আবেদন

বার্তাকক্ষ মুন্সিগঞ্জে বিএনপি-পুলিশ সংঘর্ষের ঘটনায় দায়ের করা দুই মামলায় বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট...

সেলিব্রেটিদের লোভনীয় বিজ্ঞাপন ই-অরেঞ্জের প্রতারণার ফাঁদ

বার্তাকক্ষ সেলিব্রেটিদের লোভনীয় বিজ্ঞাপনকে প্রতারণার ফাঁদ হিসেবে ব্যবহার করতো ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ই-অরেঞ্জ। প্রতিষ্ঠানটির মালিক সোনিয়া...

হাজীগঞ্জে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

বার্তাকক্ষ চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলার কালচো ইউনিয়নের ভাটরা গ্রামে স্ত্রী ফারহানা বেগম পান্নাকে (২৪) হত্যার দায়ে...