Saturday, December 10, 2022
হোম আজকের পত্রিকাঅভয়নগরে ইউপি সচিবের ওপর যুবদল নেতা চড়াও

অভয়নগরে ইউপি সচিবের ওপর যুবদল নেতা চড়াও

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

অভিনন্দন বাংলাদেশ ক্রিকেট দল

সাত বছর পর আবারো ভারতের বিপক্ষে সিরিজ জিতল বাংলাদেশ। ২০১৫ সালে ভারতের বিপক্ষে ঘরের...

জাপানির কাণ্ড! ৯ দিনে পুলিশকে দুই হাজারবার ফোন, অতঃপর…

এক বয়স্ক জাপানি ঘটিয়েছেন এক আজব কাণ্ড! ৯ দিনে ৯ বার না ২০৬০ বার...

ডেঙ্গুতে মৃত্যু নেই, হাসপাতালে ১১৮ রোগী

বার্তাকক্ষ গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ডেঙ্গু আক্রান্ত কোনো রোগী মারা যায়নি। তবে এ সময়...

তদন্তের মুখে ইলোন মাস্কের নিউরোলিংক

বার্তাকক্ষ মানবদেহে ব্রেইন চিপ পরীক্ষার অনুমোদন পাওয়ার আগে প্রাণীদেহে পরীক্ষা চালিয়েছে নিউরোলিংক। এ পরীক্ষার...

নিজস্ব প্রতিবেদক, অভয়নগর :
যশোরের অভয়নগরে মুন্না বিশ্বাস (৩৪) নামে এক যুবদল নেতার বিরুদ্ধে সিদ্ধিপাশা ইউনিয়ন পরিষদের সচিবের ওপর চড়াও হওয়ার অভিযোগ উঠেছে। তার বিরুদ্ধে অফিস ভাঙচুর ও অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করার অভিযোগ করেছেন ইউপি সচিব তুষার কান্তি দা। রোববার সকালে এমন ঘটনা ঘটলেও মঙ্গলবার বিষয়টি জানাজানি হয়।
মুন্না বিশ্বাস সিদ্ধিপাশা ইউনিয়নের ধুলগ্রামের মোশারফ বিশ্বাসের ছেলে। তিনি নিজেকে অভয়নগর থানা যুবদলের আহবায়ক কমিটির (সদ্য স্থগিত হওয়া) একজন সদস্য বলে দাবি করেন। সিদ্ধিপাশা ইউনিয়ন পরিষদের সচিব তুষার কান্তি দা বলেন, জন্ম নিবন্ধনের বিষয় নিয়ে রোববার সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে মুন্না বিশ্বাস আমার অফিসে আসেন। এ সময় তিনি জন্ম নিবন্ধন নিয়ে কেন জটিলতা হচ্ছে এমন প্রশ্ন করে আমার উপর ক্ষিপ্ত হন। তারপর অফিসের টেবিল ভাঙচুর করেন। টেবিলের উপরে থাকা কাচ ভাঙচুর করার পর আমাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে চলে যান। বিষয়ে মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা স্যারকে জানিয়েছি।
যুবদল নেতা মুন্না বিশ্বাস টেলিফোনে বলেন, ইউনিয়ন পরিষদের সচিব তুষার কান্তি দা এর সঙ্গে আমার তেমন কিছু হয়নি। আমার এক শিক্ষকের জন্ম নিবন্ধনের বিষয় নিয়ে তিনি খারাপ আচরণ করলে একটু কথা কাটাকাটি হয়। সচিব সাহেবের টেবিলের উপরের কাচটি আগেই ভাঙা ছিল। অফিস ভাঙচুর বা তার সঙ্গে গালিগালাজের কোনো ঘটনা ঘটেনি। পরবর্তীতে আমি নিজেই তার কাছে ক্ষমা চেয়ে নিয়েছি।
নিজেকে একজন বিএনপি কর্মী দাবি করে মুন্না বিশ্বাস আরও বলেন, ‘সদ্য স্থগিত হওয়া অভয়নগর থানা যুবদলের আহবায়ক কমিটির আমি একজন তালিকভুক্ত সদস্য।’
সিদ্ধিপাশা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ আবুল কাশেম বলেন, ‘ঘটনার সময় আমি পরিষদে ছিলাম না। পরে জানতে পারি সচিবের অফিসে কিছু হয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মেজবাহ উদ্দীন বলেন, উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে হামলাকারীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

রেমিট্যান্স অর্জনে সপ্তম বাংলাদেশ: বিশ্ব ব্যাংক

বার্তাকক্ষ: গত বছর প্রবাসী আয় থেকে বাংলাদেশ রেমিট্যান্স অর্জন করেছিল ২২ বিলিয়ন ডলার। চলতি বছর...

অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে বেনাপোল সোনালী ব্যাংকের তিন কর্মকর্তা সাস‌পেন্ড

সুন্দর সাহা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে বেনাপোল সোনালী ব্যাংকের ব্যবস্থাপকের বদলির পর এবার ব্যাংকের তিন...

এবার মহেশপুর সীমান্তে বিজিবির অভিযানে ৯১ পিস সোনার বারসহ আটক ১

সুন্দর সাহা যশোরের শার্শা-বেনাপোল-ঝিকরগাছা এবং চৌগাছার পর এবার মহেশপুর সীমান্তে বিজিবির অভিযানে বিপুল পরিমাণ সোনার...