Wednesday, December 7, 2022
হোম খেলাদক্ষিণ আফ্রিকার জয় কেড়ে নিলো বৃষ্টি

দক্ষিণ আফ্রিকার জয় কেড়ে নিলো বৃষ্টি

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

সময়োপযোগী পদক্ষেপ নেয়া প্রয়োজন

বায়ুদূষণ পরিবেশ ও মানব স্বাস্থ্যের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। বায়ুদূষণের অন্যতম উৎস হচ্ছে ধুলাবালি।...

মৈত্রী দিবসের আলোচনায় প্রণয় ভার্মা বাংলাদেশের সঙ্গে মৈত্রীতে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেয় ভারত

বার্তাকক্ষ বাংলাদেশের সঙ্গে মৈত্রীর ক্ষেত্রে ভারত সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়ে থাকে বলে জানিয়েছেন ঢাকায় নিযুক্ত...

স্কুলে ভর্তি: সরকারিতে এক আসনে ছয় আবেদন, বেসরকারির অধিকাংশ ফাঁকা

বার্তাকক্ষ সরকারি-বেসরকারি স্কুল ভর্তির আবেদন শেষ হয়েছে। সরকারি স্কুলে আসন প্রতি প্রায় ছয়জন করে...

আফগানিস্তানে বোমা বিস্ফোরণে নিহত ৭

বার্তাকক্ষ উত্তর আফগানিস্তানের সবচেয়ে বড় শহরে রাস্তার পাশে পুঁতে রাখা বোমা বিস্ফোরণে অন্তত সাত...

বার্তাকক্ষ
বিশ্বকাপ ম্যাচে বৃষ্টি দেখলেই নিশ্চয়ই বুকটা দুুরুদুরু করতে থাকে প্রোটিয়াদের। বৃষ্টিভাগ্য যে তাদের কখনই শুভ নয়। এর আগে বৃষ্টির কারণে বিশ্বকাপ থেকে অপ্রত্যাশিতভাবে ছিটকে পড়ার অতীতও আছে। এবার অবশ্য ছিটকে পড়ার মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়নি এখনও। তবে প্রথম ম্যাচেই বৃষ্টির কারণে হাতের মুঠোয় থাকা ম্যাচটিতে পয়েন্ট ভাগ করতে হলো প্রোটিয়াদের। বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে জয়ের একদম দ্বারপ্রান্তে ছিল টেম্বা বাভুমার দল। এমনকি পাঁচ ওভার খেলা হলেও জেতার কথা ছিল প্রোটিয়াদের। কিন্তু জয় থেকে ১৩ রান দূরে বৃষ্টি এসে ম্যাচ পরিত্যক্ত করে দিলো। জিম্বাবুয়ে পেয়ে গেলো ভাগ্যের জোরে পয়েন্ট। বৃষ্টির কারণে দুই দলকে ৯ ওভার বেঁধে দেন আম্পায়াররা। প্রোটিয়া বোলিং তোপ সামলে ওয়েসলে মাদভেরের ব্যাটে চড়ে ৯ ওভারে জিম্বাবুয়ে তোলে ৫ উইকেটে ৭৯ রান। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকা রান তাড়ায় নামার পর ১.১ ওভার গেলে ফের হানা দেয় বৃষ্টি। নতুন করে খেলা শুরু হলে ৭ ওভারে প্রোটিয়াদের লক্ষ্য দাঁড়ায় ৬৪ রান। কুইন্টন ডি কক বলতে গেলে একাই ম্যাচ বের করে নিয়ে আসছিলেন। তার ১৮ বলে ৪৭ রানের বিধ্বংসী ইনিংসে ৩ ওভারেই বিনা উইকেট ৫১ রান তুলে ফেলেছিল প্রোটিয়ারা। এরপরই বৃষ্টির কারণে ম্যাচ হয় পরিত্যক্ত। হোবার্টের বেলেরিভ ওভালে এই ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেন জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক ক্রেইগ আরভিন। তবে বৃষ্টির পর খেলা শুরু হলে বিপদেই পড়ে দলটি। মেঘলা আকাশ আর ভেজা পিচের সুবিধা কাজে লাগিয়ে জিম্বাবুয়ের টপঅর্ডারকে নাকাল করে ছাড়েন রাবাদা-পারনেলরা। ১৯ রানের মধ্যে ৪ উইকেট হারায় জিম্বাবুয়ে। সাজঘরে ফেরেন অধিনায়ক আরভিন (২), রেগিস চাকাভা (৮), শন উইলিয়ামস (১), সিকান্দার রাজা (০)। তবে ওয়েসলে মাদভেরে এরপর দুর্দান্ত ব্যাটিং করে লড়াই করার মতো পুঁজি এনে দেন দলকে। ১৮ বলে ৪ বাউন্ডারি আর ১ ছক্কায় ৩৮ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। মিলটন শাম্বা করেন ১৯ বলে ১৯। দক্ষিণ আফ্রিকার পেসারদের মধ্যে লুঙ্গি এনগিদি ২০ রানে নেন ২টি উইকেট।

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

বিশ্বকাপে সুযোগ পাচ্ছে আরও ১৬ দল

বার্তাকক্ষ: ফুটবল বিশ্বকাপের আগামী আসরে আরও ১৬টি দল বাড়ছে। কাতারে চলমান বিশ্বকাপে ৩২টি দল অংশ...

নেইমার ভেবেছিলেন তার বিশ্বকাপ শেষ!

বার্তাকক্ষ: নেইমারের উপস্থিতি মাঠে কতটা প্রভাব ফেলে তার প্রমাণ তো দেখা গেছে। সাম্বার ছন্দে শেষ...

ব্রাজিলের কাছে হারের পর সরে দাঁড়ালেন দ. কোরিয়া কোচ

বার্তাকক্ষ: অপ্রতিরোধ্য ব্রাজিলের কাছে শেষ ষোলোয় আর পাত্তা পায়নি দক্ষিণ কোরিয়া। ৪-১ গোলে হেরে কাতার...