Wednesday, December 7, 2022
হোম আইটিআহত সৈন্যদের চিকিৎসায় আসছে ভি-আর নিয়ন্ত্রিত রোবট

আহত সৈন্যদের চিকিৎসায় আসছে ভি-আর নিয়ন্ত্রিত রোবট

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

সময়োপযোগী পদক্ষেপ নেয়া প্রয়োজন

বায়ুদূষণ পরিবেশ ও মানব স্বাস্থ্যের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। বায়ুদূষণের অন্যতম উৎস হচ্ছে ধুলাবালি।...

মৈত্রী দিবসের আলোচনায় প্রণয় ভার্মা বাংলাদেশের সঙ্গে মৈত্রীতে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেয় ভারত

বার্তাকক্ষ বাংলাদেশের সঙ্গে মৈত্রীর ক্ষেত্রে ভারত সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়ে থাকে বলে জানিয়েছেন ঢাকায় নিযুক্ত...

স্কুলে ভর্তি: সরকারিতে এক আসনে ছয় আবেদন, বেসরকারির অধিকাংশ ফাঁকা

বার্তাকক্ষ সরকারি-বেসরকারি স্কুল ভর্তির আবেদন শেষ হয়েছে। সরকারি স্কুলে আসন প্রতি প্রায় ছয়জন করে...

আফগানিস্তানে বোমা বিস্ফোরণে নিহত ৭

বার্তাকক্ষ উত্তর আফগানিস্তানের সবচেয়ে বড় শহরে রাস্তার পাশে পুঁতে রাখা বোমা বিস্ফোরণে অন্তত সাত...

বার্তাকক্ষ সামরিক বাহিনীর দলের মধ্যে রোবট ঘুরে বেড়াচ্ছে—এমনটা শোনার পর স্বাভাবিকভাবেই আমাদের মানসপটে ভেসে ওঠে সায়েন্স ফিকশনধর্মী কোনো চলচিত্রের দৃশ্য। যেখানে দেখা যায় কল্পিত কোনো সমাজ বা রাষ্ট্রের শাসকদের অন্যায়ের বিরুদ্ধে মানবজাতি কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাবিশিষ্ট রোবটের সঙ্গে অস্তিত্ব রক্ষার লড়াইয়ে শামিল। কিন্তু যুক্তরাজ্যের গবেষকরা ঠিক বিপরীত বাস্তবতার কথাই বলছেন। তারা এমন এক রোবোটিক প্রযুক্তির বিকাশ নিয়ে কাজ করছেন, যা অনেকটাই জীবনরক্ষাকারী চিকিৎসা ব্যবস্থার সমতুল্য সেবা প্রদানে সক্ষম হবে। খবর এনগ্যাজেট।
চিকিৎসা বিজ্ঞানের ভাষায় ট্রাইয়েজ হচ্ছে রোগীর স্বাস্থ্যের দ্রুত চিকিৎসার মূল্যায়ন। গবেষকরা ভার্চুয়াল রিয়েলিটি (ভিআর) ট্রাইয়েজ ভিডিও কলের বিকল্প হিসেবে এ রোবটদের উন্নয়নে কাজ করছেন। যেটি আহতদের সেবা প্রদানে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা ব্যবস্থা সম্পর্কে দ্রুত সিদ্ধান্ত নেবে। শেফিল্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের এক দল চিকিৎসক গবেষণাটি পরিচালনা করছেন। তারা মূলত যুদ্ধের সময় সৈনিকদের চিকিৎসায় একটি টেলিপ্রেজেন্স ব্যবস্থার উন্নয়নে কাজ করছে। টেলিপ্রেজেন্স হচ্ছে প্রযুক্তির মাধ্যমে একজন মানুষকে তার আসল জায়গার পরিবর্তে অন্য কোথাও উপস্থাপন করা বা দেখানো।
বর্তমানে যুদ্ধক্ষেত্রে আহত সৈন্যদের চিকিৎসার জন্য সীমিত সংখ্যক চিকিৎসকদের ওপর নির্ভর করতে হয়। অনেক সময় নিজেদের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে তারা এ সেবাগুলো দিয়ে থাকেন। এক্ষেত্রে সংক্রমণ বা দূষণসহ রোগীর অন্যান্য ঝুঁকিও থাকে। তাছাড়া আহত রোগীর যদি আরো উন্নত চিকিৎসার প্রয়োজন হয় বা অন্য স্থানে সরিয়ে নিতে হয় তার জন্যও সময় লাগে।
টেলিপ্রেজেন্স পদ্ধতির মাধ্যমে চিকিৎসকরা যুদ্ধক্ষেত্রের বাইরে থেকে বা দূরে বসেও এ রোবটের মাধ্যমে রোগীর শরীরের তাপমাত্রা ও রক্তচাপ পরিমাণ করতে পারবেন। যেমন যন্ত্রটি যুদ্ধক্ষেত্রে আহত সৈনিকের শরীর থেকে রক্ত কিংবা মুখ থেকে লালা সংগ্রহ করে তথ্যগুলো ছবি ও ভিডিওর মাধ্যমে চিকিৎসক দলের কাছে পাঠাবে, যা দেখে ওই আহত সৈনিকের আঘাতের মাত্রা মূল্যায়নসহ তার প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য দ্রুত কী ধরনের ব্যবস্থা নিতে হবে তা দূর থেকেই নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হবে। পাশাপাশি তাকে প্রয়োজনীয় প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়াও সম্ভব হবে।
শেফিল্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের এ প্রকল্পের সহপ্রধান সানজা ডোগ্রামাদজি বলেন, আমাদের প্লাটফর্মটি সর্বাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে এটিকে এমনভাবে একীভূত করবে, যা আগে কখনো হয়নি।

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

যুক্তরাষ্ট্রের নতুন আইন নিয়ে হুমকি ফেসবুকের

বার্তাকক্ষ যুক্তরাষ্ট্রে নতুন একটি আইন পাস হলে দেশটির সংবাদমাধ্যমগুলোকে ফেসবুক থেকে সরিয়ে দেয়ার হুমকি...

স্মার্টফোন বাড়লেও ইন্টারনেটের ব্যবহার আশানুরূপ নয়

বার্তাকক্ষ তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তির যুগে বিশ্বজুড়ে স্মার্টফোন ব্যবহার বাড়ছে। কিশোর থেকে প্রাপ্তবয়স্ক সবার হাতেই...

এফসিসির অনুমতি পেল স্পেসএক্স

বার্তাকক্ষ দ্বিতীয় প্রজন্মের স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণে ফেডারেল কমিউনিকেশন কমিশন (এফসিসি) বা মার্কিন নিয়ন্ত্রক সংস্থার অনুমতি...