Thursday, December 8, 2022
হোম সাহিত্যবাংলা একাডেমি পুরস্কার: আলোচনায় যারা

বাংলা একাডেমি পুরস্কার: আলোচনায় যারা

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

ব্যাংকিং খাত নিয়ে গুজব

ব্যাংকিং খাত নিয়ে গুজব গ্রাহকের মনে সন্দেহের দানা বেঁধেছে। রটানো হচ্ছে। ফেসবুক, টুইটার, ইনস্টাগ্রাম...

বিএনপির কার্যালয় থেকে বোমা উদ্ধার: পুলিশ

বার্তাকক্ষ রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে বোমা ও ককটেল উদ্ধার করা হয়েছে বলে...

পুরুষের ফুসফুস, নারীর স্তন ক্যানসার বেশি

বার্তাকক্ষ দেশে ক্যানসার আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। রাজধানীর ক্যানসার গবেষণা ইনস্টিটিউট ও...

খুলনার সাবেক ডিসি ও ডুমুরিয়ার ইউএনওকে হাইকোর্টে তলব

বার্তাকক্ষ খুলনার ভদ্রা ও হরি নদীতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের আদেশ প্রতিপালন না করায় সাবেক...

বার্তাকক্ষ দেশের সর্বোচ্চ পুরস্কারের মধ্যে বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার অন্যতম। ফলে কবি-সাহিত্যিকদের মধ্যে এ পুরস্কার নিয়ে আগ্রহ অনেক। প্রতিবছর বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার কারা পাচ্ছেন, এ নিয়ে জল্পনা–কল্পনা শুরু হয়। এমনকি পুরস্কার ঘোষণার পরও আলোচনা-সমালোচনা চলতে থাকে।
অমর একুশে বইমেলার প্রস্তুতির সঙ্গে সঙ্গে বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার ঘোষণা এখন অনেকটা নিয়মে পরিণত হয়েছে। সাহিত্যের সঙ্গে যারা জড়িত কিংবা খোঁজ-খবর রাখেন, তারা অপেক্ষায় থাকেন—কে বা কারা পাচ্ছেন বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার।
২০২১ সালে পুরস্কার পেয়েছিলেন—কবিতায় আসাদ মান্নান ও বিমল গুহ, কথাসাহিত্যে ঝর্না রহমান ও বিশ্বজিৎ চৌধুরী, প্রবন্ধে হোসেনউদ্দীন হোসেন, অনুবাদে আমিনুর রহমান ও রফিক-উম-মুনীর চৌধুরী, নাটকে সাধনা আহমেদ, শিশুসাহিত্যে রফিকুর রশীদ, মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক গবেষণায় পান্না কায়সার, বঙ্গবন্ধুবিষয়ক গবেষণায় হারুন-অর-রশিদ, বিজ্ঞানে শুভাগত চৌধুরী, আত্মজীবনীতে সুফিয়া খাতুন ও হায়দার আকবর খান রনো এবং ফোকলোরে পুরস্কার পেয়েছেন আমিনুর রহমান সুলতান।
বিভিন্ন সূত্রে জানা যায়, মূলত পুরস্কারের প্রতি আগ্রহটা শুরু হয় নভেম্বর থেকেই। আলোচনায় সরব থাকেন কবি-লেখকরা। বিভিন্ন মাধ্যমে সে আলোচনা ছড়িয়ে পড়ে। এ বছর কবিতায় আলোচনায় আছেন—ফারুক মাহমুদ, ময়ূখ চৌধুরী, মজিবুল হক কবির, দুখু বাঙাল, মাহমুদ কামাল, সাইফুল্লাহ মাহমুদ দুলাল, মাহাবুব কবির, চঞ্চল আশরাফ, মিনার মনসুর, জাহিদ হায়দার, তারিক সুজাত, টোকন ঠাকুর ও মাসুদ পথিক।
কথাসাহিত্যে এবার আলমগীর রেজা চৌধুরী, নূরুদ্দিন জাহাঙ্গীর, ইসহাক খান, মোজ্জামেল হক নিয়োগী, পারভেজ হোসেন, মশিউল আলম, মনিরা কায়েস, সেলিম মোরশেদ, আকিমুন নাহার ও আহমাদ মোস্তফা কামালকে নিয়ে আলোচনা চলছে। আবার এ আলোচনার বাইরেও অনেকে আছেন, যারা কথাসাহিত্যে বাংলা একাডেমি পুরস্কার পাওয়ার যোগ্য।
শিশুসাহিত্যিক যারা আলোচনায় আছেন, তারা হলেন—ফারুক নওয়াজ, ফারুক হোসেন, রোমেন রায়হান, তপংকর চক্রবর্তী, ধ্রুব এষ ও সারওয়ার-উল-ইসলাম।
প্রবন্ধ ও গবেষণায় যাদের নাম আলোচনায় আছে, তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন—গাজী আজিজুর রহমান, মাসুদুজ্জামান ও মজিদ মাহমুদ।
ফোকলোর বিভাগে তুলনামূলক কম সাহিত্যিক থাকলেও ড. তপন বাগচী, মোস্তফা সেলিম, সুমন কুমার দাসের নাম আলোচিত হচ্ছে। এর বাইরেও কোনো একজন পেতে পারেন।
সবমিলিয়ে যাদের নাম আলোচনায় এসেছে; তারা প্রত্যেকেই যোগ্য। নিয়ম অনুযায়ী প্রতিটি বিভাগে একজন বা দুজন করে পাবেন পুরস্কার। ফলে অন্যদের আশাহত হতে হবে। এটাই স্বাভাবিক। তবে পরে যে তারা পাবেন না, এমনটি নিশ্চিত করে বলা যায় না।
আলোচনার বাইরে থেকেও যে কেউ পুরস্কার পেতে পারেন। তাতে অবাক হওয়ার কিছু নেই। তবুও আশা করবো, যোগ্য ব্যক্তির হাতেই উঠুক যোগ্যতম পুরস্কার।

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

রাহেল রাজিবের প্রেমের কবিতা: বাস্তবতার অভিজ্ঞান

মাঈন উদ্দিন আহমেদ ‘লেন ভেদে গাড়ি চলে, জীবন চলে না কেন চালাও!’ চরণ দুটি কবি রাহেল রাজিবের...

সানাউল্লাহ সাগরের পাঁচটি কবিতা

আশ্রয়কেন্দ্র তুমি এসে গেছো! যাই যাই করেও যাওয়া হলো না আমার, অথবা নিরক্ষর এই জীবন ছেড়ে কোথাও যেতে...

সালেক খোকনের নতুন গবেষণাগ্রন্থ ‘বীরত্বে একাত্তর’

বিজয়ের মাস ডিসেম্বরের প্রথম তারিখেই কথাপ্রকাশ থেকে লেখক ও মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক গবেষক সালেক খোকন-এর নতুন...