Wednesday, February 1, 2023
হোম সাহিত্যশায়লা জাবীনের কবিতা: যাযাবর ও ঘুণ

শায়লা জাবীনের কবিতা: যাযাবর ও ঘুণ

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

মিয়ানমারে সেনা শাসনের দুই বছর, জনগণের নীরব প্রতিবাদ

বার্তাকক্ষ ,,দুই বছর হয়ে গেছে মিয়ানমারে সামরিক অভ্যুত্থানের। সামরিক শাসন, গনতন্ত্রের অধিকার হরণ ও...

৭ দিনের আয়ে ইতিহাস গড়ল ‘পাঠান’

বার্তাকক্ষ ,,সমালোচকদের দাঁতভাঙা জবাব দিয়ে দুর্দান্তভাবে ফিরলেন বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান। দীর্ঘ চার বছরেরও...

ফিফা কাউন্সিলের নির্বাচনে হেরে গেলেন মাহফুজা আক্তার

বার্তাকক্ষ ,,টানা তৃতীয় মেয়াদে ফিফার কাউন্সিল মেম্বার হওয়া হলো না মাহফুজা আক্তার কিরণের। টানা...

আমি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মচারী না : ঢাবি অধ্যাপক

বার্তাকক্ষ ,,পাঠ্যবই সংশোধনী কমিটিতে সদস্য হিসেবে কাজ করার কোনো আগ্রহ নেই বলে জানিয়েছেন ঢাকা...

যাযাবর
খুউব ইচ্ছে করে রিক্ত হৃদয়ে বেরিয়ে যাই দূরান্তরে
যাযাবরের জীবন যেমন আজ এখানে কাল তেপান্তর
সুতোর বাঁধন কেটে দিয়ে বিনি সুতোর মায়া উপেক্ষা করে
উদোম পায়ে হেঁটে হেঁটে হাজার নিযুত মাইল পেরিয়ে
অনেক তো হলো, আর কত এইসব দিন-রাত্রি
একঘেয়ে নিরামিষ চাখতে দেখতে বড় অভক্তি
স্রষ্টার নিয়মের বেড়াজাল আপনজনের মায়াজাল
অধিকতর বিশৃঙ্খল সমাজের মানুষ সকল
খালি দলাদলি বিলাপ, গড়াগড়ি, কাঁদা ছোড়াছুড়ি
লাজলজ্জা ভদ্রতার কোনো বালাই নেই কোথাও
শ্বাস রুদ্ধ হয়ে আসে, কোথাও কি শুদ্ধ বাতাস আছে?
ধুলোবালি নুড়ি পাথর ছাড়িয়ে, অ্যাসিড বৃষ্টি এড়িয়ে
কদাচিত পথিমধ্যে ঘাসফুলের বিদ্রোহী গলা সরিয়ে
অমাবস্যার আঁধার, বাদুড়ের সজাগ চাহনী বদ্ধ জলাশয়
সাঁতরে পাড়ি দেবো কৈ মাছের প্রাণ
পিছুটান পিছে ফেলে সামনের পথে আগুয়ান
শোনো বাদামি চোখের ছেলে
তোমার অপেক্ষা করছে না আর বাদামি চোখের মেয়ে
শুনে রেখো মন খুলে
বিবাগী অন্তর আর বসে না আড়ংয়ের সংসারে
দায়িত্ব কর্তব্য ভাগ বাটোয়ারা…
শাড়ি গহনা সব নিয়ে যা তোরা
আমার শুধু চিত্রা হরিণ মেঘ বৃষ্টি চাই
কাঠঠোকড়া যুগ যুগ ধরে ঠোকর কেটে গেছে
বুলবুল সাথী হতে চায়, ময়না বেশি বলে মিছে
ঈগল কেন তীক্ষ্ণ নজর মেলে উড়ে উড়ে পালায়
শুকসারি গুড় পাটালি চৈতালি বাতাস
তবুও মন খুঁজে ফেরে দক্ষিণা হাওয়া ছন্নছাড়া
হিমালয় চূড়া, ঝরনার কান্না
না না না কিচ্ছু চাই না…
তোমার হাসি আমার কান্না ফেলে দিলাম রিসাইকেল বিনে
রাম শাম যদু মধু চন্দ্রিমা আর বিদিশার জাদু
ঘন আঁধারে বন-জঙ্গলে ঝাঁকে ঝাঁকে জোনাকি ঠেলে
অশ্বত্থ গাছের বেদীমূলে বসে ধ্যানে মজে যেতে চাই
এনেছি আমার শত জনমের সাধ
ভবঘুরে জীবন চাই
ধ্যানমগ্নতা হেথায় সেথায়
নিরঙ্কুশ স্থবিরতায় মহাকালের নিস্তব্ধতায়
দোহাই লাগে মনে রেখো না কেউ আমায়
হাজার হাজার বছর পরেও আমি যাযাবর জীবন চাই…
****
ঘুণ
জগতের মাঝে এক নিঃশব্দের ঘোর
তোমায় নিয়ে যাবে অন্তরের ভেতর
ঘুণ পোকার মতো কুড়ে কুড়ে খাবে
কারোর কিছুই না আসবে যাবে…
অস্থি মজ্জা রুবী পান্না
দুঃখ বেদনা মরা কান্না
চৌকাঠ ঢোল উঁইয়ের জ্বালায়
আবলুস কাঠ গুড়ো গুড়ো হয়ে লুটায়
চোখে পড়ে দন্তবিকশিত হাসি
দীর্ঘশ্বাসরা পালিয়ে বেঁচে যায়
কেবল প্রেমেই কিছুটা স্বস্তি…
আনন্দ বেদনা কাটাকাটি
দুঃখ-কষ্টের মিশেলে অদ্ভুত প্রাপ্তি
ভালোবাসা যে ফিনিক্স পাখি,
পুড়ে যায় তবুও মরে না
প্রাণ নিয়ে ধরা দেয় না…
ভালোবাসা তো দাবানল নয়
ভীষণ এক মায়া,
প্রাপ্তি অপ্রাপ্তি আমলে নিলে
মিলবে না তো ছায়া…
প্রবোধবিহীন জীবন
আনন্দে ভাসি যখন তখন
সহ্য করতে বড্ড জ্বালা
অবিরত মুখভার…
দৃষ্টি দূরে কোথাও
ঘুঙুরে ধুলো জমে যায়
তানপুরা অস্পৃশ্য পড়ে রয়
না চাইতেই গলার স্বর ক্ষয়
সকলে আনন্দে গা ভাসায়…
তাই আমি দুঃখ ফেরি করি
সুখগুলোকে আড়াল করে
কেঁদে কেটে মরি
পাছে কেউ সুখ দেখে মোর
হিংসায় ডুবে যায়
তাহলে যে দু’ছটাক সুখও পালিয়ে যাবে হায়।

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

দুই ফোকলোর-সাধককে পুরস্কৃত করে বাংলা একাডেমিই যেন পুরস্কৃত হলো!

বঙ্গদেশে ফোকলোর-সাধনা, পঠন-পাঠন ও গবেষণার উজ্জ্বল উত্তরাধিকার বহনকারী দুই কীর্তিমান সাধক ড. আবদুল খালেক...

রাইসুল এইচ চৌধুরীর কবিতা: বহুদিন

চোখাচোখি হয়নি বহুকাল অবেলায় দাঁড়িয়ে থাকা অলস শালিকের মতো দাঁড়িয়ে আছি যেন মহাকাল ধরে হাঁটুগেড়ে বসে থাকা...

অমৃতকথা—২

শামিম আহমেদ চিন্তার ইতিহাসে আকাশ-দেবতা খুবই গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়। মধ্যপ্রাচ্যের অনু-র মতো চিন্তা অন্যান্য দেশেও ছিল।...