Monday, February 6, 2023
হোম আজকের পত্রিকাপ্রথম পাতাআজ থেকে অচল নওয়াপাড়া নৌ-বন্দর: মজুরি বৃদ্ধিসহ ১০ দফা দাবিতে নৌ-যান শ্রমিকদের...

আজ থেকে অচল নওয়াপাড়া নৌ-বন্দর: মজুরি বৃদ্ধিসহ ১০ দফা দাবিতে নৌ-যান শ্রমিকদের অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি শুরু

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

নিপাহ ভাইরাস : সতর্ক হোন

নিপাহ ভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ছে। ইতোমধ্যে দেশের ২৮ জেলায় এই ভাইরাসের সংক্রমণ পাওয়া গেছে বলে...

ফাত্তাহ তানভীর রানার গল্প: প্রেমিকরা-প্রেমিকারা

শিয়া মসজিদ থেকে তাজমহল রোড ধরে একটু সামনে এগোলে রাস্তার ধারে অনেকগুলো বাড়ির মধ্যে...

মাথাপিছু আয় কমে ২৭৯৩ ডলার

বার্তাকক্ষ ,,দেশের মানুষের মাথাপিছু আয় কমে দুই হাজার ৭৯৩ ডলারে নেমে এসেছে। চূড়ান্ত হিসাবে...

৫ মেডিক্যাল কলেজের কার্যক্রম স্থগিত, একটি বাতিল

বার্তাকক্ষ ,,আইন ও নীতিমালা অনুসারে মানসম্পন্ন শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা না করায় পাঁচটি বেসরকারি মেডিক্যাল...

হারুন-অর-রশীদ, অভয়নগর
নৌ-যান শ্রমিকদের মজুরি বৃদ্ধি, চট্টগ্রাম থেকে পাইপ লাইনে জ্বালানি তেল সরবরাহের চলমান কার্যক্রম বন্ধসহ ১০ দফা দাবিতে দেশব্যাপি কর্মবিরতির ডাক দিয়েছে নৌযান শ্রমিক সংগ্রাম পরিষদ। যে কারনে সারা দেশের ন্যায় আজ রোববার থেকে যশোরের নওয়াপাড়া নৌ-বন্দরেও পালিত হবে অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতি। ফলে নওয়াপাড়া নদী বন্দরের ঘাট সমূহে লোড-আনলোড বন্ধ থাকবে। অচল হয়ে পড়বে বন্দরের কার্যক্রম। চলমান কয়লার মৌসুমে অনির্দিষ্টকালের এ কর্মবিরতিতে মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ্য হবে বন্দর ব্যবহারকারী ব্যবসায়ীরা। ফলে চলমান মৌসুমে এমন কর্মবিরতির ডাক দেয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন ব্যবসায়ী নেতার। এদিকে সারাদেশের ন্যায় নওয়াপাড়া নদী বন্দরে কর্মবিরতির বাস্তবায়নের লক্ষে নওয়াপাড়া নৌ-যান শ্রমিক ফেডারেশনের পক্ষ থেকে গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় যশোর-খুলনা মহাসড়কে বিক্ষোভ বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে শ্রমিক-কর্মচারীরা। তারা দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত রাজপথ না ছাড়ার হুশিয়ারি দিয়েছেন। বিক্ষোভ মিছিল পরবর্তী সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ নৌ-যান শ্রমিক ফেডারেশনের খুলনা বিভাগীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক জসিম মাষ্টার, লঞ্চ লেবার এ্যাসোসিয়শন খুলনা শাখার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রুবেল মাষ্টার, বাংলাদেশ নৌ-যান শ্রমিক ফেডারেশন নওয়াপাড়া শাখার অফিস সেক্রেটারি নিয়ামুল হক রিকো প্রমুখ। এসময় বক্তারা দাবি আদায়ে শেষ পর্যন্ত রাজপথে সংগ্রাম চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন। দাবি গুলো হলো- নৌ যান শ্রমিকদের সর্বনিম্ন মজুরি ২০ হাজার টাকায় উন্নীতকরন, দূর্ঘটনায় মৃত্যুজনিত ক্ষতিপূরণ ১০ লক্ষ টাকা নির্ধারণ, কন্টিবিউটরি প্রভিডেন্ট ফান্ড ও নাবিক কল্যান তহবিল গঠন, ভারতগামী শ্রমিকদের ল্যান্ডিং পাস প্রদান, বাল্কহেডের রাত্রিকালীন চলাচলের আরোপিত নিষেধাজ্ঞা শিথিলকরণ, পরিবহণ নীতিমালা শতভাগ কার্যকরকরন, চরপাড়া ঘাটের ইজারা বাতিল ও চট্টগ্রাম থেকে পাইপ লাইনে জ্বালানি তেল সরবরাহের চলমান কার্যক্রম বন্ধসহ ১০ দফা।
এদিকে ভরা মৌসুমে নৌ-যান শ্রমিকদের ডাকা এ কর্মবিরতিতে রীতিমত উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন নওয়াপাড়ার ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ ও হ্যান্ডলিং শ্রমিক ইউনিয়নের নেতারা। তারা আশংকা করছেন, চলমান কয়লা ও সারের মৌসুমে নৌ-যান শ্রমিকদের ডাকা এ অনির্দিষ্ট কর্মবিরতি প্রত্য্হাার না হলে অচল হয়ে পড়বে নওয়াপাড়া নদী বন্দর। বন্ধ হয়ে যাবে লোড-আনলোডের কাজ। কর্মহীন হয়ে পড়বে অভয়নগর নওয়াপাড়া হ্যান্ডলিং শ্রমিক ইউনিয়নের হাজার শ্রমিক। বন্দর ব্যবহারকারি ব্যবসায়ীদের কোটি কোটি টাকার ক্ষতির সম্মুখিন হতে হবে। এ ব্যাপারে অভয়নগর নওয়াপাড়া পৌর হ্যান্ডলিং শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আমিনুর রহমান বলেন, নৌ-যান শ্রমিকদের কর্মবিরতির কারনে বন্দর এলাকায় লোড-আনলোডের কাজ বন্ধ থাকবে। ফলে হাজার হাজার হ্যান্ডলিং শ্রমিককে অলস সময় কাটাতে হবে। সেই সাথে তাদের প্রতিদিনকার উপার্জনও বন্ধ হয়ে যাবে। যার প্রভাব পড়বে শ্রমিক পরিবার গুলোর উপর। নওয়াপাড়া সার-সিমেন্ট, খাদ্য শষ্য ও কয়লা ব্যবসায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব শাহ্ জালাল হোসেন উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, দেশের অর্থনৈতিক ক্রান্তিলগ্নে ব্যবসায়ীরা এমনিতেই নাজুক অবস্থায় পড়েছেন। তার উপর এই ভরা মৌসুমে নৌ-যান শ্রমিক কর্মবিরতির ফলে নওয়াপাড়া ব্যবসা-বাণিজ্য মূখ থুবড়ে পড়বে। মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হবে ব্যবসায়ীরা। তিনি কর্মবিরতি প্রত্যাহার করে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনাপূর্বক সমস্যার সমাধানের আহবান জানান।

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

১৯৭১- এর নৃশংতার জন্য পাকিস্তানকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান

বার্তাকক্ষ ,,১৯৭১-এ বাংলাদেশিদের ওপর চালানো নৃশংসতার জন্য পাকিস্তানকে ক্ষমা চাওয়ার কথা বলেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে...

‘জনশুমারির চূড়ান্ত প্রতিবেদনের জন্য অপেক্ষা কঠিন হয়ে যাচ্ছে’

বার্তাকক্ষ ,,সংসদীয় এলাকার সীমানা পুনর্নির্ধারণে জনশুমারির চূড়ান্ত প্রতিবেদনের জন্য অপেক্ষায় থাকা কঠিন হয়ে যাচ্ছে...

সবাইকে কর দেওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

বার্তাকক্ষ ,,প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশবাসীকে তাদের কর প্রদানের আহ্বান জানিয়ে বিশ্বব্যাপী অর্থনৈতিক সংকট কাটিয়ে...