Wednesday, February 8, 2023
হোম শহর-গ্রামযশোরটাকার অভাবে নওয়াপাড়ায় বৃদ্ধ কাশেমের চিকিৎসা বন্ধ!

টাকার অভাবে নওয়াপাড়ায় বৃদ্ধ কাশেমের চিকিৎসা বন্ধ!

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

বেসরকারি কলেজ উন্নয়ন প্রকল্প বারবার মেয়াদ বাড়ায় অসন্তোষ, কঠোর হচ্ছে আইএমইডি

বার্তাকক্ষ ,,শিক্ষার মানোন্নয়নে নির্বাচিত দেড় হাজারের বেশি বেসরকারি কলেজকে প্রযুক্তিগত সুবিধার আওতায় আনতে চায়...

এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় পাসের হার ৮৫.৯৫

বার্তাকক্ষ: এবারের উচ্চ-মাধ্যমিক সার্টিফিকেট (এইচএসসি) ও সমমান পরীক্ষায় গড় পাসের হার ৮৫ দশমিক ৯৫ শতাংশ।...

ইতিহাস গড়ে ক্লাব বিশ্বকাপের ফাইনালে আল-হিলাল

বার্তাকক্ষ: সৌদি আরবের ফুটবল যে দিন দিন উন্নতি করছে তার প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে কাতার বিশ্বকাপেই।...

বিচারকের সঙ্গে দুর্ব্যবহার হাইকোর্টে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইলেন নীলফামারীর বার সভাপতি

বার্তাকক্ষ ,,আদালতে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি, আইন-আদালতের প্রতি বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন এবং বিচারকের সঙ্গে অপেশাদার, আক্রমণাত্মক ও...

নিজস্ব প্রতিবেদক, অভয়নগর
যশোরের অভয়নগর উপজেলার নওয়াপাড়ায় জটিল রোগে আক্রান্ত মুদি দোকানি মো. আবুল কাশেমের (৬০) টাকার অভাবে চিকিৎসা বন্ধ হয়ে গেছে। ধার দেনা ও সমিতির ঋণ নিয়ে এ যাবৎ চিকিৎসা চালিয়ে আসলেও নিঃস্ব পরিবারের পক্ষে আর চিকিৎসা চালিয়ে যাওয়া অসম্ভব হয়ে পড়েছে। এ জন্য বৃদ্ধ পিতাকে বাঁচাতে সমাজের বিত্তবান ও হৃদয়বানদের কাছে হাত পেতেছেন অসহায় সন্তান সোহাগ। বৃদ্ধ আবুল কাশেম উপজেলার গুয়াখোলা গ্রামের রেলবস্তির মৃত বদু মিয়ার ছেলে।


আবুল কাশেমের ছেলে মো. সোহাগ কাজি বলেন, চলতি বছরের এপ্রিল মাসে বাবা অসুস্থ হয়ে পড়লে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। বিভিন্ন পরীক্ষার পর লিভারে জন্ডিস ধরা পড়ে। পরবর্তীতে ডাক্তারের পরামর্শে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। খুলনা মেডিক্যালে প্রায় এক মাস চিকিৎসা দেওয়ার পর টাকার অভাবে বাবাকে বাড়ি ফিরিয়ে আনতে হয়। জমানো ও সমিতি থেকে ঋণ করা টাকা নিয়ে বাড়ি রেখে তার চিকিৎসাও চলছিল। গত সেপ্টেম্বর মাসে তিনি পুনরায় অসুস্থ হয়ে পড়লে খুলনার আদ্-দ্বীন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে কয়েকটি পরীক্ষায় পেটে টিউমার, লিভার সমস্যা ও জটিল রোগের কথা জানিয়ে ঢাকায় শেখ রাসেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া এবং অপারেশন করানোর পরামর্শ দেন আদ্-দ্বীন হাসপাতালের ডা. মো. হানিফ (ইমন)।
তিনি আরও বলেন, বাবার অসুস্থতার কারণে রেলবস্তির সামনে মুদি দোকানটিও বন্ধ করতে হয়েছে। দরিদ্র পরিবার, বাবা অসুস্থ হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত ধারদেনা করে কয়েক লাখ টাকা ব্যয় করা হয়েছে। ডাক্তারদের মতে ছয় লাখ টাকা হলে বাবার অপরাশেনসহ চিকিৎসা করানো সম্ভব। এতো টাকা জোগাড় করা আমাদের মত দরিদ্র পরিবারের পক্ষে অসম্ভব। তাই সমাজের বিত্তবান ও হৃদয়বান মানুষের নিকট আর্থিক সহযোগিতা কামনা করছি। আপনাদের সহযোগিতায় আমার বাবার অপারেশন ও চিকিৎসা করানো সম্ভব। সাহায্যের জন্য যোগাযোগ করুন, মো. সোহাগ কাজি- বিকাশ নং- ০১৯১২-৩৪৮৬৩৬।

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

সাতক্ষীরার পৌর মেয়র চিশতি সাময়িক বরখাস্ত

আব্দুল আলিম, সাতক্ষীরা নাশকতার মামলায় কারাগারে যাওযায় সাতক্ষীরার পৌর মেয়র ও বিএনপি নেতা তাজকিন আহমেদ...

পল্লী চিকিৎসকের সন্ধান চেয়ে অঝোরে কাঁদলেন দুই স্ত্রী

বার্তাকক্ষ ,,যশোরে এক পল্লী চিকিৎসককে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য পরিচয়ে তুলে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার...

খুলনায় মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে হত্যা : দুজনের যাবজ্জীবন

খুলনা সংবাদদাতা মহান মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আমিন উদ্দিন হত‌্যা মামলায় দু’আসা‌মি‌কে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড...