Wednesday, February 8, 2023
হোম লাইফ স্টাইলত্বকের যত্নে ভিটামিন সি’যুক্ত ফেসওয়াশ কেন উপকারী?

ত্বকের যত্নে ভিটামিন সি’যুক্ত ফেসওয়াশ কেন উপকারী?

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

প্রধানমন্ত্রী পাসের হারে মেয়েরা এগিয়ে, ছেলেদের আরও মনোযোগী হতে হবে

বার্তাকক্ষ ,,২০২২ সালের উচ্চমাধ্যমিক সার্টিফিকেট (এইচএসসি) ও সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের অভিনন্দন জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ...

ঢাকা বোর্ডে পাসের হার ৮৭ দশমিক ৮০

বার্তাকক্ষ ,,উচ্চমাধ্যমিক (এইচএসসি) ও সমমান পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে। এইচএসসি পরীক্ষায় ঢাকা শিক্ষা...

আনন্দ-উচ্ছ্বাসে ভাওয়াল রাজবাড়ি মাঠে জিপিএ-৫ উৎসব শুরু

বার্তাকক্ষ ,,গাজীপুরে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় জিপিএ-৫ প্রাপ্ত কৃতী শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা শুরু হয়েছে। আজ...

পাকিস্তানে বাস-কার সংঘর্ষে নিহত ৩০

বার্তাকক্ষ ,,পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশে বাস ও কারের সংঘর্ষে অন্তত ৩০ জন নিহত হয়েছেন।...

বার্তাকক্ষ ফেসওয়াশ ত্বককে গভীরভাবে পরিষ্কার করতে সাহায্য করে। পরিবেশ দূষণের কারণে প্রতিদিন অনেক দূষিত পদার্থ ত্বকে জমা হয়।
ত্বকের গভীর থেকে পরিষ্কার না করলে ত্বকের উজ্জ্বলতা হারিয়ে যায় ও অ্যাকনে প্রবলেম দেখা দেয়। এজন্য ত্বকের যত্নে ভালো উপকারী হতে পারে ভিটামিন সি।
ত্বকের যত্নে ভিটামিন সি’র উপকারিতা
ভিটামিন সি এমন একটি উপাদান যা ত্বকের গভীরে প্রবেশ করতে পারে। তাই ভিটামিন সি’যুক্ত ফেসওয়াশ ত্বককে গভীর থেকে পরিষ্কার করে।
ভিটামিন সি ত্বককে ইউভি প্রোটেকশন দেয়, অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট হওয়ায় ত্বককে ফ্রি রেডিক্যাল ও অক্সিডেটিভ ড্যামেজ থেকে মুক্ত রাখে।
আর কোলাজেন সিন্থেসিসের মাধ্যমে ত্বকের কোলাজেন প্রোডাকশন বৃদ্ধি করে। তাতে বলিরেখা দূর হয়। পাশাপাশি অতিরিক্ত মেলানিন উৎপাদন নিয়ন্ত্রণ করে। ফলে হাইপার পিগমেন্টেশন ও ডার্ক স্পট দূর করতেও কার্যকরী ভূমিকা রাখে ভিটামিন সি।
ত্বকের যত্নে যারা ভিটামিন সি’যুক্ত ফেসওয়াশ ব্যবহার করতে চান, তারা যায়ান অ্যান্ড মাইজা ভিটামিন সি ফেসওয়াশ বেছে নিতে পারেন। এটি ইথাইল অ্যাসকরবিক অ্যাসিড’যুক্ত ফেসওয়াশ।
কেন যায়ান অ্যান্ড মাইজা ভিটামিন সি ফেসওয়াশ ব্যবহার করবেন?
১০০ শতাংশ ভেষজ উপাদানে তৈরি সম্পূর্ণ কেমিক্যালমুক্ত ফেসওয়াশ এটি। ত্বকে নিয়মিত ব্যবহারের জন্য উপকারী। এই ফেসওয়াশ ত্বকের পিএইচ লেভেল ব্যালেন্স করতে পারে।
এই ফেসওয়াশ স্মল মলিকিউলের তৈরি। খুব ছোট মলিকিউলার গঠন ও ইথাইল অ্যাসকরবিক অ্যাসিড’যুক্ত হওয়ায় ত্বককে গভীর থেকে পরিষ্কার করে।
এতে আছে অ্যালোভেরা ও হোলি বেসিল। যা স্কিনের আর্দ্রতা ফিরিয়ে আনে। ইন-বিল্ট এপ্লিকেটর সমৃদ্ধ ফেসওয়াশটি এপ্লিকেটরের সাহায্যে দিনে দু’বার ত্বকে ব্যাবহার করলে ব্রণের দাগ ও হাইপার পিগমেন্টেশন দূর হবে।
ফলে ত্বক আরও উজ্জ্বল ও কোমল হয়ে উঠবে। স্কিনকে ড্যামেজ ফ্রি রাখে এই ফেসওয়াশ। পাশাপাশি স্কিনের ওপেন পোরস মিনিমাইজ করবে।

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

আধুনিক হচ্ছে ফিটনেস সেন্টারগুলো, প্রশিক্ষণের মান ও অনুমোদনব্যবস্থা কতটুকু?

বার্তাকক্ষ ,,এক দশক আগেও ফিটনেস (জিম) সেন্টারগুলোর প্রতি তরুণ সমাজের আগ্রহ ছিল বেশি। সেই...

শীতের বিকেলে স্বাদ নিন চিকেন মমোর

বার্তাকক্ষ ,,মমো খেতে কে না পছন্দ করেন। বিশেষ করে চিকেন মমোর স্বাদে সবাই মুগ্ধ।...

ডায়াবেটিস রোগীর কাঁধে ব্যথা

বার্তাকক্ষ ,,বয়স্ক ডায়াবেটিস রোগীদের বেশির ভাগই কাঁধের ব্যথায় ভুগে থাকেন। যার মূল কারণ অ্যাডহেসিভ...