Wednesday, February 1, 2023
হোম অর্থনীতিসাধারণ বিমা করপোরেশন সাবেক এমডি শাহরিয়ারের বিরুদ্ধে ২৩৯ কোটি টাকা অনিয়মের অভিযোগ

সাধারণ বিমা করপোরেশন সাবেক এমডি শাহরিয়ারের বিরুদ্ধে ২৩৯ কোটি টাকা অনিয়মের অভিযোগ

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

মিয়ানমারে সেনা শাসনের দুই বছর, জনগণের নীরব প্রতিবাদ

বার্তাকক্ষ ,,দুই বছর হয়ে গেছে মিয়ানমারে সামরিক অভ্যুত্থানের। সামরিক শাসন, গনতন্ত্রের অধিকার হরণ ও...

৭ দিনের আয়ে ইতিহাস গড়ল ‘পাঠান’

বার্তাকক্ষ ,,সমালোচকদের দাঁতভাঙা জবাব দিয়ে দুর্দান্তভাবে ফিরলেন বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খান। দীর্ঘ চার বছরেরও...

ফিফা কাউন্সিলের নির্বাচনে হেরে গেলেন মাহফুজা আক্তার

বার্তাকক্ষ ,,টানা তৃতীয় মেয়াদে ফিফার কাউন্সিল মেম্বার হওয়া হলো না মাহফুজা আক্তার কিরণের। টানা...

আমি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মচারী না : ঢাবি অধ্যাপক

বার্তাকক্ষ ,,পাঠ্যবই সংশোধনী কমিটিতে সদস্য হিসেবে কাজ করার কোনো আগ্রহ নেই বলে জানিয়েছেন ঢাকা...

বার্তাকক্ষ রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান সাধারণ বিমা করপোরেশনের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সৈয়দ শাহরিয়ার আহসানের বিরুদ্ধে মানি লন্ডারিংসহ ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। অনিয়মের মাধ্যমে তিনি সাধারণ বিমা করপোরেশনের ২৩৯ কোটি টাকার বেশি ক্ষতি করেছেন বলেও অভিযোগ এসেছে। তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে শাহরিয়ার আহসান বলেছেন, তিনি কোনো অনিয়ম করেননি।
সম্প্রতি সৈয়দ শাহরিয়ার আহসান বেসরকারি সাধারণ বিমা কোম্পানি পাইওনিয়ার ইন্স্যুরেন্সে মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) পদে যোগ দিয়েছেন। মাসিক ১০ লাখ টাকা বেতন-ভাতায় তার নিয়োগ অনুমোদন দিয়েছে বিমা খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ)।বিমাগ্রহীতা থেকে ২ কোটি টাকা প্রিমিয়াম আদায় করে পুনর্বিমা প্রিমিয়াম পরিশোধের মাধ্যমে খরচ ১৬২ কোটি টাকা। এতে ক্ষতির পরিমাণ ১৬০ কোটি টাকা। শাহরিয়ার আহসান ও ওয়াসিফুল হক আর্থিক সুবিধা নিয়ে ২০২০ থেকে ২০২৩ পর্যন্ত মেয়াদের জন্য স্ট্রাকচার পুনর্বিমা প্রোগ্রাম চুক্তি করেন।
চলতি বছরের ২৫ অক্টোবর এই নিয়োগ অনুমোদনের পরদিনই (২৬ অক্টোবর) শাহরিয়ারের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) অভিযোগ জমা পড়ে। এতে শাহরিয়ার আহসানের পাশাপাশি অনিয়মের অভিযোগ তোলা হয়েছে সাধারণ বিমা করপোরেশনের পুনর্বিমা বিভাগের জেনারেল ম্যানেজার মো. ওয়াসিফুল হকের বিরুদ্ধেও।
দুদকে জমা দেওয়া অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে, সৈয়দ শাহরিয়ার আহসান ও মো. ওয়াসিফুল হক দীর্ঘদিন ধরে আর্থিক সুবিধা গ্রহণ করে দুর্নীতির মাধ্যমে স্ট্রাকচার পুনর্বিমা প্রোগ্রাম নামক চুক্তির মাধ্যমে বছরে শত শত কোটি টাকার বৈদেশিক মুদ্রা পাচার করে আসছেন।
এতে আরও বলা হয়েছে, সাধারণত বিমাগ্রহীতা বা বিমা কেম্পানির ঝুঁকি সাধারণ বিমা করপোরেশন গ্রহণ করে তার সক্ষমতার অতিরিক্ত অংশ বিদেশে পুনর্বিমা করে। সেক্ষেত্রে বিমার নিয়ম অনুযায়ী, বিমাগ্রহীতা থেকে বিমা ঝুঁকির বিপরীতে আদায় করা প্রিমিয়ামের তুলনায় পুনর্বিমা প্রিমিয়াম সবধরনের পুনর্বিমা চুক্তির ক্ষেত্রেই কম হয়।
চুক্তির মেয়াদে ট্রিয়েটি লিমিটেডের মধ্যে যে পরিমাণ বিমা করা হয়েছে দুর্ঘটনা হলে তার সম্পূর্ণ ক্ষতিপূরণের কাভারেজ নেই। ফলে বড় দুর্ঘটনার ক্ষেত্রে ভবিষ্যতেও সাধারণ বিমা করপোরেশনের কয়েক হাজার কোটি টাকার আর্থিক ক্ষতির সম্ভাবনা রয়েছে।
কিন্তু শাহরিয়ার আহসান ও ওয়াসিফুল হক আর্থিক সুবিধা নিয়ে ২০২০ থেকে ২০২৩ পর্যন্ত মেয়াদের জন্য স্ট্রাকচার পুনর্বিমা প্রোগ্রাম চুক্তি করেন। এ জন্য পুনর্বিমা ব্রোকার টাইসার লন্ডন’র মাধ্যমে বৈদেশিক পুনর্বিমাকারীর কাছে ১৬২ কোটি টাকা পুনর্বিমা প্রিমিয়াম পরিশোধ করা হয়। যেখানে ওই প্রিমিয়ামের বিপরীতে দুর্ঘটনা হলে সর্বোচ্চ ক্ষতিপূরণ পাওয়া যাবে ২২০ কোটি টাকা। অথচ সাধারণ বিমা করপোরেশন ২২০ কোটি টাকা বিমা অঙ্কের বিপরীতে প্রিমিয়াম আয় করে আনুমানিক ২ কোটি টাকা। ফলে এক্ষেত্রে সাধারণ বিমা করপোরেশনের সরাসরি ১৬০ কোটি টাকা ক্ষতি করা হয়েছে বলে দুদকে অভিযোগ করা হয়।
দুদকে দেওয়া অভিযোগপত্রে সৈয়দ শাহরিয়ার আহসান ও মো. ওয়াসিফুল হকের বেশকিছু অনিয়মের সারসংক্ষেপ তুলে ধরা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে-
>> বিমাগ্রহীতা থেকে ২ কোটি টাকা প্রিমিয়াম আদায় করে পুনর্বিমা প্রিমিয়াম পরিশোধের মাধ্যমে খরচ ১৬২ কোটি টাকা। এতে ক্ষতির পরিমাণ ১৬০ কোটি টাকা।
চুক্তির আওতায় প্রিমিয়াম আয়, বিমা করা ঝুঁকির পরিমাণ ও ক্ষতিপূরণ আদায়ের হিসাব দেখানো হয়নি। এক্ষেত্রে সুকৌশলে অনিয়মের মাধ্যমে পুনর্বিমা প্রিমিয়াম পরিশোধের মাধ্যমে অনিয়ম করা হয়েছে।
>> চুক্তি নবায়নের ক্ষেত্রে সর্বনিম্ন কোটেশন ৫০ কোটি টাকা অনুসরণ না করে ৬৫ কোটি টাকা পুনর্বিমা প্রিমিয়ামের মাধ্যমে চুক্তি করায় ক্ষতি হয়েছে ১৫ কোটি টাকা
>> চুক্তি নবায়নের ক্ষেত্রে আনুমানিক প্রিমিয়াম এক কোটি টাকা আদায় করে পুনর্বিমা প্রিমিয়াম পরিশোধের মাধ্যমে খরচ ৬৫ কোটি টাকা। এতে ক্ষতি ৬৪ কোটি টাকা।
>> চুক্তির মেয়াদে ট্রিয়েটি লিমিটেডের (চুক্তি সীমা) মধ্যে যে পরিমাণ বিমা করা হয়েছে দুর্ঘটনা হলে তার সম্পূর্ণ ক্ষতিপূরণের কাভারেজ নেই। ফলে বড় দুর্ঘটনার ক্ষেত্রে ভবিষ্যতেও সাধারণ বিমা করপোরেশনের কয়েক হাজার কোটি টাকার আর্থিক ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। পুনর্বিমা থাকার পরও যা সাধারণ বিমা করপোরেশনের নিজস্ব তহবিল থেকে বহন করতে হবে।
>> উপরে উল্লেখিত সব অনিয়মের অর্থ পুনর্বিমা প্রিমিয়াম হিসেবে বৈদেশিক মুদ্রায় পরিশোধ করা হয়েছে, যা মানি লন্ডারিং অপরাধের অন্তর্ভুক্ত।
>> চুক্তির আওতায় প্রিমিয়াম আয়, বিমা করা ঝুঁকির পরিমাণ ও ক্ষতিপূরণ আদায়ের হিসাব দেখানো হয়নি। এক্ষেত্রে সুকৌশলে অনিয়মের মাধ্যমে পুনর্বিমা প্রিমিয়াম পরিশোধের মাধ্যমে অনিয়ম করা হয়েছে।
>> বেসরকারি বিমা কোম্পানি থেকে আনুমানিক ৭০০ থেকে ৮০০ কোটি টাকা বকেয়া পুনর্বিমা প্রিমিয়াম আদায় না করে নগদে বৈদেশিক পুনর্বিমাকারীকে সাধারণ বিমা করপোরেশনের অর্থ পুনর্বিমা প্রিমিয়াম হিসেবে পরিশোধ করা হয়েছে।
>> বৈদেশিক পুনর্বিমাকারীর কাছ থেকে আর্থিক সুবিধা নিয়ে সাধারণ বিমা করপোরেশনের পাওনা ৩০০ কোটি টাকার বৈদেশিক মুদ্রা আদায় না করা।
এসব বিষয়ে আইডিআরএ’র চেয়ারম্যান মোহাম্মদ জয়নুল বারী জাগো নিউজকে বলেন, দুদকে কোন ধরনের অভিযোগ পড়েছে সে বিষয়ে আমার কিছু জানা নেই। তবে অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ থেকে একটি বিষয়ে তদন্তের জন্য আমাদের বলা হয়েছিল। সেটির প্রতিবেদন আমরা অর্থ মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছি।
তদন্তে আপনারা কী পেয়েছেন? এমন প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, তদন্তে কী পাওয়া গেছে, সে বিষয়ে কিছু বলা যাবে না। মন্ত্রণালয় চাইলে আমাদের প্রতিবেদন গ্রহণ করবে।
অভিযোগ ওঠা এসব অনিয়মের বিষয়ে জানতে যোগাযোগ করা হলে সৈয়দ শাহরিয়ার আহসান জাগো নিউজকে বলেন, আমার বিরুদ্ধে যেসব অভিযোগ তোলা হয়েছে তার একটিও সঠিক নয়। এসব অভিযোগ মিথ্যা। আমি সাধারণ বিমা করপোরেশনে কোনো অনিয়ম করিনি।

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

এক কার্গো এলএনজি আমদানি করবে সরকার

বার্তাকক্ষ ,,স্পট মার্কেট থেকে এক কার্গো তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) আমদানির সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।...

১৭ কারখানাকে তিন মাসের আলটিমেটাম

বার্তাকক্ষ ,,নিরাপদ কর্মপরিবেশ নিশ্চিতে পাঁচ হাজার ২০৬টি কারখানা পরিদর্শন করে ১৭টিকে তিন মাসের আলটিমেটাম...

টিসিবির জন্য কেনা হচ্ছে ১৯৪ কোটি টাকার সয়াবিন তেল

বার্তাকক্ষ ,,ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) জন্য এক কোটি ১০ লাখ লিটার সয়াবিন তেল...