Thursday, February 2, 2023
হোম রাজনীতিমির্জা ফখরুল ও আব্বাসকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে: হারুন অর রশীদ

মির্জা ফখরুল ও আব্বাসকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে: হারুন অর রশীদ

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

অভয়নগরে ধর্মীয় ও সামাজিক সম্প্রীতি রক্ষায় মতবিনিময়

নিজস্ব প্রতিবেদক, অভয়নগর অভয়নগরে ধর্মীয় ও সামাজিক সম্প্রীতি রক্ষায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সঙ্গে পূজা উদযাপন...

সাতক্ষীরায় প্রজনন মৌসুমে কঁকড়া ধরার অভিযোগে ১০ জন আটক

আব্দুল আলিম, সাতক্ষীরা প্রজনন মৌসুমে কাঁকড়া ধরার অভিযোগে সুন্দরবনের অভয়ারণ্য থেকে ১০ জেলেকে আটক করেছে...

খাবার নিয়ে খুঁতখুঁতে শিশু, কী করবেন

বার্তাকক্ষ ,,একটা বয়স পর্যন্ত শিশুদের নিয়ে অনেক মায়ের অভিযোগ থাকে ‘আমার সন্তান তো কিছুই...

সাজা শেষে ভারত থেকে দেশে ফিরলেন ৯ বাংলাদেশি নারী

নিজস্ব প্রতিবেদক বিভিন্ন মেয়াদে সাজাভোগ শেষে দেশে ফিরেছেন ভারতে পাচার হওয়া ৯ বাংলাদেশি নারী। বিশেষ...

বার্তাকক্ষ বিএনপির নেতারা আটক বা গ্রেফতার নয়, তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্যে ডিবিতে আনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ডিএমপির গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) প্রধান হারুন অর রশীদ।শুক্রবার (৯ ডিসেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর মিন্টো রোডে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।
গতকাল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত তিনটার দিকে মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও মির্জা আব্বাসকে বাসা থেকে নিয়ে যায় ডিবি পুলিশের একটি দল।
ডিবি প্রধান বলেন, গত বুধবারের ঘটনায় বিএনপি নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সেখানে প্রায় ৫০ জন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। ওই ঘটনার বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য তাদের ডিবি কার্যালয়ে আনা হয়েছে। এছাড়া বিএনপি কার্যালয়ের ভেতর থেকে ককটেল ও বিস্ফোরক দ্রব্যাদি উদ্ধার করা হয়।হারুন অর রশীদ বলেন, আগামীকাল ১০ ডিসেম্বর বিএনপির সমাবেশ। এই সমাবেশকে সামনে রেখে কোনও নাশকতার পরিকল্পনা রয়েছে কিনা জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও মির্জা আব্বাসকে আনা হয়েছে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাদের গ্রেফতার দেখানো অথবা মামলা হবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আমরা বিস্তারিত জানাবো।
সমাবেশস্থল নিয়ে আলোচনা করার জন্যই বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও মির্জা আব্বাসকে ডিবি কার্যালয়ে নিয়ে আসা হয়েছে বলেও জানান এই কর্মকর্তা। তিনি বলেন, নানা কারণে সমাবেশস্থল মিরপুরের সরকারি বাঙলা কলেজই করতে হবে।
সমাবেশ কোথায় হবে আরেক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, তাদের কমলাপুর স্টেডিয়ামের প্রস্তাবটা আমরা মেনে নিয়েছিলাম। কিন্তু সেখানে এখন ক্রিকেট খেলা চলছে, নিচে অনেক সিনথেটিক জিনিসপত্র রয়েছে। এই অবস্থায় সমাবেশ করলে মাঠটি নষ্ট হয়ে যাবে। তাই পুলিশের পক্ষ থেকে সিদ্ধান্ত হয়েছে- তারা সমাবেশ করবে মিরপুর বাঙলা কলেজের মাঠে।
তিনি বলেন, বিএনপির পক্ষ থেকে আরও একটি মাঠের প্রস্তাব এসেছে। সেটা হলো গোলাপবাগ মাঠ।আসলে এই মাঠ নিয়ে কোনও কথা হয়নি। কোনও সিদ্ধান্ত হয় নাই। কিন্তু অনানুষ্ঠানিক সিদ্ধান্ত হয়েছে মিরপুর বাঙলা কলেজ।

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

গণফোরাম ও পিপলস পার্টির সাথে বিএন‌পির বৈঠক

বার্তাকক্ষ ,,বিএন‌পির সরকার পত‌নের চলমান আন্দোল‌নের অংশ হি‌সে‌বে বিএন‌পি লিয়া‌জোঁ ক‌মি‌টির স‌ঙ্গে গণফোরাম ও...

পদযাত্রা বন্ধ করে নির্বাচনের দিকে যাত্রা করেন, বিএনপিকে কাদের

বার্তাকক্ষ ,,বিএনপিকে পদযাত্রা বন্ধ করে নির্বাচনের দিকে যাত্রা করতে বলেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক...

হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের পর হেরে গেলেন হিরো আলম

বার্তাকক্ষ ,,সাম্প্রতিক সময়ে অনলাইন কিংবা অফলাইন- সর্বত্র আলোচিত নাম আশরাফুল হোসেন আলম ওরফে হিরো...