Tuesday, February 7, 2023
হোম জাতীয়সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে হামলাকারী শনাক্ত করছে পুলিশ

সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে হামলাকারী শনাক্ত করছে পুলিশ

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

উন্মুক্ত হোক মালয়েশিয়া শ্রমবাজার

মালয়েশিয়া শ্রমবাজার নিয়ে দীর্ঘসময় জটিলতা চলছে। বারবার উদ্যোগ নিলেও ফলপ্রসূ হচ্ছে না। দুদিনের সফরে...

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রি তৃতীয় বর্ষের ফল প্রকাশ

বার্তাকক্ষ ,,জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে অনুষ্ঠিত ২০২০ সালের ডিগ্রি তৃতীয় বর্ষ চূড়ান্ত পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ...

আশংকাজনক হারে বাড়ছে মুখের ক্যান্সার

বার্তাকক্ষ ,,বিশ্বে ক্যান্সারে মোট মৃত্যুর কারণের মধ্যে মুখের ক্যান্সার নবম। বিশ্বে সকল ক্যান্সারের মধ্যে...

১২ দিনেই শাহরুখের পাঠানের আয় ৮৩২ কোটি রুপি

বার্তাকক্ষ ,,চার বছর পর ফিরেই একের পর এক রেকর্ড গড়ে চলেছেন শাহরুখ খান। তার...

বার্তাকক্ষ নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় ও এর আশপাশের এলাকা থেকে গত মঙ্গলবার (৬ ডিসেম্বর) দুপুরে পুলিশের দিকে ঢিল ও ককটেল ছোড়ার সাথে জড়িত অনেককেই শনাক্ত করা হয়েছে। এ ঘটনার সাথে আর কারা জড়িত জানতে সিসি ক্যামেরার ফুটেজ পর্যালোচনা করা হচ্ছে। ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) দায়িত্বশীল সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। এরই মধ্যে অনেক বিএনপি নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বিএনপি’র প্রধান কার্যালয়ে অভিযান চালিয়ে উদ্ধার করা হয়েছে ককটেল। এছাড়া উদ্ধার করা হয় চালের বস্তা, পানির বোতল এবং নগদ টাকা।
পুলিশ বলছে, আশেপাশের সিসি ক্যামেরা ফুটেজ পর্যালোচনা করে দেখা হচ্ছে। বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এবং আশপাশ থেকে আর কারা পুলিশের ওপর ঢিল এবং ককটেল ছুড়েছে খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এছাড়া পুলিশকে শারীরিকভাবে কারা আঘাত করেছে, কারা হামলায় জড়িত- এসব বিষয় খতিয়ে দেখা হচ্ছে। পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় জড়িত থাকার বিষয়ে অনেকের নাম পাওয়া গেছে। তবে তদন্তের স্বার্থে এখনই এসব বলা সম্ভব হচ্ছে না। তদন্তের পর দোষীদের শনাক্ত করে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।
বিএনপি সাধারণ সম্পাদক মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ অনেকেই অভিযোগ করেছেন, বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে উদ্ধার করা ককটেল পুলিশের সাজানো। তারা নিজেরাই ককটেল নিয়ে এসে পরে কার্যালয় থেকে উদ্ধার দেখিয়েছে।অভিযোগের প্রেক্ষিতে ডিএমপির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বলেন, পুলিশ ককটেল নিয়ে প্রবেশ করবে এটি একটি অযাচিত কথা। জনগণের সামনে পুলিশকে হেয় করার জন্য এটি এক ধরনের মিথ্যাচার ছাড়া আর কিছুই নয়।
পুলিশের এক কর্মকর্তা জানান, জনগণের জান-মালের নিরাপত্তা এবং পুলিশ সদস্যদের জীবনের নিরাপত্তার স্বার্থে অভিযান পরিচালনা করতে বাধ্য হয় পুলিশ। এক পর্যায়ে পুলিশ জানতে পারে- বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ককটেল এবং নাশকতা সৃষ্টির জন্য অনেক এক্সপ্লোসিভ থাকতে পারে। কোনও রাজনৈতিক দলের কার্যালয় থেকে পুলিশকে লক্ষ্য করে ককটেল নিক্ষেপ- পৃথিবীর কোনও সংস্কৃতিতে পড়ে না। রাজনৈতিক দলের কার্যালয়ে ককটেল থাকবে তা অকল্পনীয়।
এ ব্যাপারে ডিএমপির যুগ্ম কমিশনার (অপারেশনস) বিপ্লব কুমার সরকার বলেন, পুলিশের ওপর আক্রমণ করে কেউ টিকে থাকতে পারবে না- এটি পুলিশের পক্ষ থেকে একটি পরিষ্কার মেসেজ। পুলিশের ওপর যিনি আক্রমণ করবেন তার পারিপার্শ্বিক কোনও বিষয় বিবেচনা করা হবে না- তিনি অপরাধী হিসেবে বিবেচিত হবেন।
বিএনপি’র সদস্যরা হেলমেট পড়ে পুলিশের ওপর হামলা চালিয়েছে উল্লেখ্য করে ডিএমপি গোয়েন্দা বিভাগের অতিরিক্ত কমিশনার হারুন অর রশিদ বলেন, পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল এবং ককটেল বিস্ফোরণের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে আমরা অনেককে গ্রেফতার করেছি।

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

দেশে ১০ কোটি টাকার বেশি সম্পদ আছে ২৮,৯৩১ জনের

বার্তাকক্ষ ,,২০২১ সালে দেশে ৫০ কোটি ডলার বা ৫ হাজার কোটি টাকার বেশি পরিমাণের...

যমুনা সার কারখানায় ফের উৎপাদন বন্ধ

বার্তাকক্ষ ,,যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে দেশের সর্ববৃহৎ ইউরিয়া উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান যমুনা সারকারখানায় ফের উৎপাদন বন্ধ...

অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়ে পঙ্গু হাসপাতালের সাব-কন্ট্রাক্টরের মৃত্যু

বার্তাকক্ষ ,,রাজধানীর শ্যামলীতে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়ে শওকত ফকির (৫৪) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু...