Thursday, February 2, 2023
হোম জাতীয়উত্তরে ঘন কুয়াশা, জেঁকে বসছে শীত

উত্তরে ঘন কুয়াশা, জেঁকে বসছে শীত

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

মোদীর বিদেশ সফর, খরচ জানালো সরকার

বার্তাকক্ষ ,,২০১৯ সাল থেকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ২১ বার বিদেশ সফর করেছেন। তাতে...

নিজেকে ধোনির মতো মনে হচ্ছে হার্দিক পান্ডিয়ার

বার্তাকক্ষ ,,টি-টোয়েন্টিতে ভারতের অধিনায়ক এখন হার্দিক পান্ডিয়া। যদিও এখনও স্থায়ী দায়িত্ব পাননি। তবে, তার...

নিয়োগ পরীক্ষায় প্রশ্নফাঁস করে লাভবান হতেন তারা

বার্তাকক্ষ ,,রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠানের নিয়োগ পরীক্ষায় প্রশ্ন ও উত্তরপত্র ফাঁস করে আসছিল সংঘবদ্ধ জালিয়াত চক্র।...

আইএমএফের ঋণ প্রথম কিস্তির ৫০৯৪ কোটি টাকা পেলো বাংলাদেশ

বার্তাকক্ষ ,,আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) ঋণের ৪৭৬.১৭ মিলিয়ন ডলারের প্রথম কিস্তি বাংলাদেশে এসেছে। বাংলাদেশি...

বার্তাকক্ষ শীত উপেক্ষা করে একে অপরের কাঁধে হাত রেখে বিদ্যালয়ে যাচ্ছে শিক্ষার্থীরাশীত উপেক্ষা করে একে অপরের কাঁধে হাত রেখে বিদ্যালয়ে যাচ্ছে শিক্ষার্থীরা
উত্তরের জেলা দিনাজপুরে প্রতিনিয়ত তাপমাত্রা কমছে। সেই সঙ্গে প্রতিদিন মধ্যরাত থেকে ঘন কুয়াশায় আচ্ছন্ন হতে শুরু করছে জনপদ। কুয়াশার কারণে সকালেও আলো জ্বেলে চলছে যানবাহন।
আবহাওয়া অফিসের কর্মকর্তারা বলছেন, চলতি মাসেই দেখা দেবে শৈত্যপ্রবাহ, সেই সঙ্গে হালকা বৃষ্টিপাতও হতে পারে। এতে তাপমাত্রা ৮ থেকে ৬ ডিগ্রি পর্যন্ত কমে যেতে পারে।
দিনাজপুরে গত কয়েকদিন ধরেই ঘন কুয়াশা দেখা যাচ্ছে। আগের দিন সন্ধ্যা থেকে পরের দিন সকাল ৮টা থেকে ৯টা পর্যন্ত কুয়াশা থাকছে। সূর্য উঠলেও প্রখরতা নেই। এই সময়টাতে লোকজন জরুরি প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হচ্ছেন না। ঘন কুয়াশার পাশাপাশি কনকনে ঠান্ডাও জেঁকে বসতে শুরু করেছে। কৃষিজীবী নিম্ন আয়ের মানুষের কাজে বের হওয়া মুশকিল হয়ে পড়ছে।
বুধবার (১৪ ডিসেম্বর) সকাল থেকে সূর্যের দেখা মেলেনি। ঘন কুয়াশা ঢেকে রেখেছে চারপাশ। সকাল ১০টা পর্যন্ত একই অবস্থা। যদিও সকাল ৯ টার পরেই সূর্যের দেখা মিলেছে, তবে প্রখরতা নেই। এই সময়টাতে সড়ক ও মহাসড়কে যানবাহনগুলো হেডলাইট জ্বালিয়ে চলাচল করছে।
দিনাজপুর শহরের পার্শ্ববর্তী সুখসাগর এলাকার লতিফুর রহমান বলেন, ‌‘প্রতিদিন সকালে ইজিবাইক নিয়ে বের হই। এই সময়ে ইজিবাইকের চলাচল কম হওয়ায় যাত্রী ভালো পাওয়া যায়। তবে গত কয়েকদিন ধরে সকালে যাত্রীদের উপস্থিতি একেবারেই কম। শীতের কারণে মানুষজন বাড়ি থেকে বের হচ্ছেন না। আমিও যে ইজিবাইক চালাচ্ছি তাতে প্রচন্ড ঠান্ডায় হাত-পা জড়ো হয়ে যাচ্ছে।’
একই এলাকার সিরাজুল ইসলাম বলেন, ‘সকালে কিছু শাক বিক্রির জন্য সাইকেল নিয়ে বের হয়েছিলাম। সেগুলো বাহাদুরবাজারে দিয়ে আসলাম। কিন্তু সকালে এমন অবস্থা যে সাইকেলের হ্যান্ডেল ধরে রাখতে পারছিলাম না। ঠান্ডায় হাত বরফ হয়ে যাচ্ছিল যেন।’
সদরের চেহেলগাজী ইউনিয়নের গোপালগঞ্জ এলাকার ফিরোজ ইসলাম বলেন, ‘এখন ধানের বীজ বপন করার সময়। মাঠে আলু রয়েছে। যদি এমনভাবে কুয়াশা হয় তাহলে রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দেবে। এই সময়ে আমরা খুব ভয়ে থাকি। কয়েকদিন ধরেই ঘন কুয়াশা, তাই আলুতে বালাইনাশক স্প্রে করতে হচ্ছে।’
রাজবাটী এলাকার সফিকুল ইসলাম বলেন, ‘প্রচন্ড ঠান্ডা। কাজ-কাম হচ্ছে না। সকালে ঠান্ডার কারণে বের হওয়া যাচ্ছে না। এই সময়টা আমাদের মতো নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য একটু সমস্যাই বটে।’
দিনাজপুর আঞ্চলিক আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের তথ্যমতে, বুধবার জেলায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১৪ দশমিক শূন্য ডিগ্রি সেলসিয়াস। এর আগে মঙ্গলবার তাপমাত্রা ছিল ১৩ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সোমবার ছিল ১৩ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস।
জেলা আবহাওয়া অফিসের কর্মকর্তা মো. আসাদুজ্জামান জানান, তাপমাত্রা কিছুটা বাড়লেও আজ সকাল থেকেই ঘন কুয়াশা ছিল। এই তাপমাত্রা ক্রমান্বয়ে কমে যেতে পারে এবং এই মাসেই একটি শৈত্যপ্রবাহের আশঙ্কা রয়েছে। সেই সঙ্গে একটি হালকা বৃষ্টিপাতও হতে পারে।

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

জুট মিল থেকে বিশ হাজার টন চাল জব্দ, গুদাম সিলগাল

বাগেরহাট সংবাদদাতা অতিরিক্ত মুনাফার জন্য মজুদ করা ২০ হাজার মেট্রিকটন চাল জব্দ করেছেে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ...

হজ কার্যক্রমে অংশ নেওয়ার অনুমতি পেলো ৭৪৭ এজেন্সি

বার্তাকক্ষ ,,চলতি বছর হজ কার্যক্রমে অংশ নিতে প্রাথমিকভাবে ৭৪৭টি এজেন্সিকে অনুমতি দিয়েছে সরকার। বুধবার...

ঘুস ছাড়া কাগজ দেন না ভূমি কর্মকর্তা

বার্তাকক্ষ ,,দর কষাকষি করে প্রকাশ্যেই ঘুস নেন রাজশাহীর বড়কুঠি মহানগর ভূমি অফিসের ইউনিয়ন ভূমি...