Monday, February 6, 2023
হোম Protidiner Kathaপেরুতে আগাম নির্বাচনের দাবিতে বিক্ষোভ, জরুরি অবস্থা জারি

পেরুতে আগাম নির্বাচনের দাবিতে বিক্ষোভ, জরুরি অবস্থা জারি

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

নিপাহ ভাইরাস : সতর্ক হোন

নিপাহ ভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ছে। ইতোমধ্যে দেশের ২৮ জেলায় এই ভাইরাসের সংক্রমণ পাওয়া গেছে বলে...

ফাত্তাহ তানভীর রানার গল্প: প্রেমিকরা-প্রেমিকারা

শিয়া মসজিদ থেকে তাজমহল রোড ধরে একটু সামনে এগোলে রাস্তার ধারে অনেকগুলো বাড়ির মধ্যে...

মাথাপিছু আয় কমে ২৭৯৩ ডলার

বার্তাকক্ষ ,,দেশের মানুষের মাথাপিছু আয় কমে দুই হাজার ৭৯৩ ডলারে নেমে এসেছে। চূড়ান্ত হিসাবে...

৫ মেডিক্যাল কলেজের কার্যক্রম স্থগিত, একটি বাতিল

বার্তাকক্ষ ,,আইন ও নীতিমালা অনুসারে মানসম্পন্ন শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা না করায় পাঁচটি বেসরকারি মেডিক্যাল...

বার্তাকক্ষ দক্ষিণ আমেরিকার দেশ পেরুতে দেশব্যাপী জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। ৭ ডিসেম্বর দেশটির সদ্য সাবেক প্রেসিডেন্ট পেদ্রো কাস্টিলোকে অভিশংসনের মাধ্যমে ক্ষমতাচ্যুত করা নিয়ে ছড়িয়ে পড়া বিক্ষোভ নিয়ন্ত্রণে বুধবার (১৪ ডিসেম্বর) এ জরুরি অবস্থা জারি করা হয়।
ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম রয়টার্স‍ এক প্রতিবেদনে বলে, পেরুর প্রতিরক্ষামন্ত্রী দেশব্যাপী এ জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেন। এমন পরিস্থিতিতে গত এক সপ্তাহ ধরে চলা সহিংস বিক্ষোভ নিয়ন্ত্রণ করে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে পুলিশের পাশাপাশি কাজ করার অনুমতি পেলো দেশটির সামরিক বাহিনী।অনেক মনে করছেন, পেদ্রো কাস্টিলোকে দীর্ঘ মেয়াদে কারাগারে রাখতে চায় পেরুর বর্তমান প্রশাসন।
পেরুর সরকারি হিসাব অনুযায়ী, কাস্টিলোকে অভিশংসনের পর ছড়িয়ে পড়া বিক্ষোভে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে ছয়জন মারা গেছেন। অন্যদিকে, বিক্ষোভকারীরা মহাসড়ক অবরোধ করেন, ভবনে আগুন লাগিয়ে দেন ও বিমানবন্দরে ভাঙচুর চালান।দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী আলবার্তো ওতারোলা সাংবাদিকদের বলেন, আমরা ভাঙচুর ও সহিংসতার কারণে সারাদেশে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছি। এর জন্য সরকারের কাছ থেকে জোরদার সাড়া প্রয়োজন।
এদিকে বুধবার পেরুর প্রসিকিউটররা জানান, তারা বিদ্রোহ ও ষড়যন্ত্রের অভিযোগে অভিযুক্ত কাস্টিলোর ১৮ মাসের প্রাক-বিচার আটকের দাবি করেছেন। পেরুর সুপ্রিম কোর্ট তাদের এ আবেদনটি বিবেচনা করার জন্য বৈঠক করেছে। কিন্তু পরে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত অধিবেশন স্থগিত ঘোষণা করা হয়।
কাস্টিলোর বিরুদ্ধে আগেই অভিশংসনের প্রস্তাব এনেছিলেন দেশটির আইনপ্রণেতারা। কিন্তু নিজেকে রক্ষা করতে কাস্টিলো পার্লামেন্ট ভেঙে দেওয়ার চেষ্টা চালান। ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার কয়েক ঘণ্টা আগে তিনি ডিক্রি জারি করে দেশ শাসনের ঘোষণা দেন।সেসময় টেলিভিশনে দেওয়া এক ভাষণে কাস্টিলো বলেন, অস্থায়ীভাবে পার্লামেন্ট ভেঙে দেওয়া হবে। ডিক্রির মাধ্যমে শাসনভার পরিচালনা ও দেশে নতুন নির্বাচন আয়োজন করবো আমি।
তার এ ঘোষণাকে সুষ্পষ্ট অভ্যুত্থান হিসেবে উল্লেখ করেন তার নিজ ও বিরোধী দলের সদস্যরা। এরপর পার্লামেন্টে জরুরি অধিবেশন ডেকে তাকে অভিশংসিত করা হয়। এরপরই কাস্টিলোকে আটক করা হয়।
এ ঘটনার মাত্র কয়েক ঘণ্টা পরেই পেরুর নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নেন ভাইস-প্রেসিডেন্ট দিনা বোলোয়ার্তে। ৬০ বছর বয়সী দিনা পেরুর ইতিহাসে প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট। ২০২৬ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করার কথা রয়েছে তার। যদিও বিক্ষোভ শুরুর পর আগাম নির্বাচনের কথা বলেছেন তিনি।
সূত্র : রয়টার্স

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

চিলিতে দাবানলে ২৩ জনের মৃত্যু

বার্তাকক্ষ: চিলিতে দাবানলে অন্তত ২৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার দেশটির কর্মকর্তারা এ তথ্য জানিয়েছে। কর্মকর্তারা...

দুই ব্রিটিশ নাগরিকের মরদেহ ইউক্রেনে ফিরিয়ে দিলো রাশিয়া

বার্তাকক্ষ ,,বন্দি বিনিময় চুক্তির অংশ হিসেবে দুই ব্রিটিশ স্বেচ্ছাসেবী ক্রিস প্যারি ও অ্যান্ড্রু বাগশোর...

২৪ ঘণ্টায় বিশ্বজুড়ে ৫৯০ মৃত্যু, জাপানেই ২৫৬

বার্তাকক্ষ ,,করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে ৫৯০ জনের মৃত্যু হয়েছে। নতুন করে...