Monday, February 6, 2023
হোম আন্তর্জাতিকমালয়েশিয়ায় গভীর রাতে ভূমিধসে নিহত ১৬, নিখোঁজ অনেকে

মালয়েশিয়ায় গভীর রাতে ভূমিধসে নিহত ১৬, নিখোঁজ অনেকে

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

নিপাহ ভাইরাস : সতর্ক হোন

নিপাহ ভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ছে। ইতোমধ্যে দেশের ২৮ জেলায় এই ভাইরাসের সংক্রমণ পাওয়া গেছে বলে...

ফাত্তাহ তানভীর রানার গল্প: প্রেমিকরা-প্রেমিকারা

শিয়া মসজিদ থেকে তাজমহল রোড ধরে একটু সামনে এগোলে রাস্তার ধারে অনেকগুলো বাড়ির মধ্যে...

মাথাপিছু আয় কমে ২৭৯৩ ডলার

বার্তাকক্ষ ,,দেশের মানুষের মাথাপিছু আয় কমে দুই হাজার ৭৯৩ ডলারে নেমে এসেছে। চূড়ান্ত হিসাবে...

৫ মেডিক্যাল কলেজের কার্যক্রম স্থগিত, একটি বাতিল

বার্তাকক্ষ ,,আইন ও নীতিমালা অনুসারে মানসম্পন্ন শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা না করায় পাঁচটি বেসরকারি মেডিক্যাল...

বার্তাকক্ষ মালয়েশিয়ায় গভীর রাতে ভূমিধসের ঘটনায় ১৬ জন নিহত ও অন্তত ৭ জন আহত হয়েছেন। মৃতদের মধ্যে ৫ বছর বয়সী এক শিশু রয়েছে। এদিকে, ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৫০ জনেরও বেশি মানুষকে উদ্ধার করা হলেও, নিখোঁজ রয়েছেন আরও অনেকে।ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, শুক্রবার (১৬ ডিসেম্বর) স্থানীয় সময় রাত ৩টার দিকে কুয়ালালামপুরের কাছাকাছি সেলাঙ্গর রাজ্যে ক্যাম্পিং সুবিধাসহ একটি জৈব খামার এলাকায় রাস্তার পাশে ভূমিধসের এ ঘটনা ঘটে।রাজ্যটির দমকল ও উদ্ধার বিভাগ এক বিবৃতিতে জানায়, গভীর রাতে ঘটা ভয়াবহ এ ভূমিধসের কবলে পড়েন অন্তত ৯২ জন মানুষ। তাদের মধ্যে ৫৩ জনকে অক্ষত অবস্থায় পাওয়া যায়।
সেলাঙ্গর রাজ্য দমকল ও উদ্ধার বিভাগের পরিচালক নোরাজাম খামিস বলেছেন, আনুমানিক ৩০ মিটার (১০০ ফুট) উচ্চতা থেকে ভূমিধসের এ ঘটনা ঘটে। ভূমিধসটির ব্যাপ্তি ছিল প্রায় এক একর জায়গাজুড়ে।
কুয়ালালামপুরের বাটাং কালি শহরের প্রায় ৫০ কিলোমিটার (৩০ মাইল) উত্তরে গেনটিং হাইল্যান্ডসের জনপ্রিয় পাহাড়ি এলাকার বাইরে বিপর্যয়কর এ ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন দেশটির সরকার ও জনগণ। এ এলাকাটি মূলত রিসোর্ট ও প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের জন্য বিশেষভাবে পরিচিত।
শুক্রবার সকালে মালয়েশিয়ার প্রাকৃতিক সম্পদ, পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রী নিক নাজমি নিক আহমেদ টুইটারে বলেন, আমি প্রার্থনা করছি, যাতে নিখোঁজদের শিগগির অক্ষত অবস্থায় খুঁজে পাওয়া যায়। উদ্ধারকর্মীদের দল শুরু থেকেই কাজ করছে। আমি আজ সেখানে যাচ্ছি।
সেলাঙ্গর হলো মালয়েশিয়ার সবচেয়ে ধনী রাজ্য। এর আগেও রাজ্যটির বাসিন্দারা ভূমিধসের শিকার হয়েছেন। এ অঞ্চলে এখন বর্ষা মৌসুম চলছে। তবে সেখানে গত রাতে কোনো ভারি বৃষ্টি বা ভূমিকম্প রেকর্ড করা হয়নি।
এক বছর আগে মালয়েশিয়ার সাতটি রাজ্যে প্রবল বৃষ্টিতে সৃষ্ট বন্যায় প্রায় ২১ হাজার মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছিলেন।

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

১৯৭১- এর নৃশংতার জন্য পাকিস্তানকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান

বার্তাকক্ষ ,,১৯৭১-এ বাংলাদেশিদের ওপর চালানো নৃশংসতার জন্য পাকিস্তানকে ক্ষমা চাওয়ার কথা বলেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে...

‘জনশুমারির চূড়ান্ত প্রতিবেদনের জন্য অপেক্ষা কঠিন হয়ে যাচ্ছে’

বার্তাকক্ষ ,,সংসদীয় এলাকার সীমানা পুনর্নির্ধারণে জনশুমারির চূড়ান্ত প্রতিবেদনের জন্য অপেক্ষায় থাকা কঠিন হয়ে যাচ্ছে...

সবাইকে কর দেওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

বার্তাকক্ষ ,,প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশবাসীকে তাদের কর প্রদানের আহ্বান জানিয়ে বিশ্বব্যাপী অর্থনৈতিক সংকট কাটিয়ে...