Tuesday, February 7, 2023
হোম আন্তর্জাতিকপাকিস্তানের রিজার্ভ তলানিতে, সাড়ে ৮টায় বন্ধ হবে দোকানপাট

পাকিস্তানের রিজার্ভ তলানিতে, সাড়ে ৮টায় বন্ধ হবে দোকানপাট

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

উন্মুক্ত হোক মালয়েশিয়া শ্রমবাজার

মালয়েশিয়া শ্রমবাজার নিয়ে দীর্ঘসময় জটিলতা চলছে। বারবার উদ্যোগ নিলেও ফলপ্রসূ হচ্ছে না। দুদিনের সফরে...

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রি তৃতীয় বর্ষের ফল প্রকাশ

বার্তাকক্ষ ,,জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে অনুষ্ঠিত ২০২০ সালের ডিগ্রি তৃতীয় বর্ষ চূড়ান্ত পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ...

আশংকাজনক হারে বাড়ছে মুখের ক্যান্সার

বার্তাকক্ষ ,,বিশ্বে ক্যান্সারে মোট মৃত্যুর কারণের মধ্যে মুখের ক্যান্সার নবম। বিশ্বে সকল ক্যান্সারের মধ্যে...

১২ দিনেই শাহরুখের পাঠানের আয় ৮৩২ কোটি রুপি

বার্তাকক্ষ ,,চার বছর পর ফিরেই একের পর এক রেকর্ড গড়ে চলেছেন শাহরুখ খান। তার...

বার্তাকক্ষ:
পাকিস্তানের জ্বালানি খাত ঋণের জালে জর্জরিত। সেই সঙ্গে দেশটির অর্থনৈতিক সংকটও দিন দিন বাড়ছে। এই সংকট মোকাবিলায় জ্বালানি খরচ কমাতে নতুন পদক্ষেপ নিয়েছে দেশটির সরকার। পাকিস্তানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী খাজা আসিফ ঘোষণা দিয়েছেন, দেশটির সব বিপণিবিতান রাত সাড়ে ৮টায় বন্ধ করতে হবে। এ ছাড়া বিয়ের অনুষ্ঠানের হলগুলো ফাঁকা করতে হবে রাত ১০টার মধ্যে। এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় সরকারের মন্ত্রিসভা মঙ্গলবার ‘ন্যাশনাল এনার্জি ইফিসিয়েন্সি অ্যান্ড কনজারভেশন প্ল্যান’ পাস করেছে। জ্বালানি খরচ কমানোর জন্য এই পরিকল্পনা পাস করেছে তারা। সরকারের এই পরিকল্পনা নেওয়ার অন্যতম কারণ হলো দেশটির রিজার্ভ ফুরিয়ে আসছে। সরকারের দেওয়া তথ্য অনুসারে, ডিসেম্বরে ৫৮০ কোটি মার্কিন ডলারে নেমে এসেছে দেশটির রিজার্ভ। হিসাব অনুযায়ী, গত আট বছরের মধ্যে রিজার্ভ তলানিতে এসে ঠেকেছে। এই রিজার্ভ দিয়ে এক মাসের মতো পণ্য আমদানি করা যেতে পারে। ঠিক এই পরিস্থিতিতে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) থেকে যে ঋণ আসার কথা ছিল, তা–ও দেরি হচ্ছে। ফলে বাধ্য হয়ে সরকার এই পথে হাঁটছে। পাকিস্তানের পত্রিকা ডনের খবরে বলা হয়েছে, গত বছরের সেপ্টেম্বরে দেশটির জ্বালানি খাতে ঋণের পরিমাণ ছিল ২ দশমিক ২৫৩ ট্রিলিয়ন (পাকিস্তানি) রুপি। বছর শেষে এটা বেড়ে হয়েছে ২ দশমিক ৪৩৭ ট্রিলিয়ন রুপি। অর্থাৎ এ সময়ের ব্যবধানে ঋণের পরিমাণ ১৮ হাজার ৫০০ কোটি রুপি বেড়েছে। ফলে বিদ্যুৎ সঞ্চালন কোম্পানিগুলো বিদ্যুৎ উৎপাদনকারীদের দেনা মেটাতে পারছে না। ফলে বিদ্যুৎ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলো জ্বালানি সরবরাহকারীদের দেনা মেটাতে পারছে না।
প্রতিরক্ষামন্ত্রী খাজা আসিফ বলেন, জ্বালানি খরচ কমাতে রেস্তোরাঁও বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বণিক সমিতির প্রতিনিধিরা এই সিদ্ধান্তের সঙ্গে একমত পোষণ করেননি। তবে এরপরও সরকার দোকানপাট দ্রুত বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
খাজা আসিফ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ সরকারি দপ্তরগুলোকে বিদ্যুৎ খরচ ৩০ শতাংশ কমানোর নির্দেশনা দিয়েছেন।

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

ইসরায়েলের কাছে ত্রাণ চেয়েছে সিরিয়া, দাবি নেতানিয়াহুর

বার্তাকক্ষ ,,ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু দাবি করেছেন, ভয়াবহ ভূমিকম্পের পর ত্রাণ সহযোগিতার অনুরোধ জানিয়েছে...

তুুরস্ক-সিরিয়ায় ভূমিকম্প: মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৬০০

বার্তাকক্ষ ,,তুরস্ক ও সিরিয়ায় আঘাত হানা ভূমিকম্পে এখন পর্যন্ত প্রায় এক হাজার ছয়শ মানুষের...

তুরস্কে ভূমিকম্পে মৃতের সংখ্যা ছাড়াতে পারে ১০ হাজার

বার্তাকক্ষ: তুরস্কের দক্ষিণাঞ্চলে আঘাত হানা শক্তিশালী ভূমিকম্পে মৃতের সংখ্যা ১০ হাজার ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে...