Tuesday, February 7, 2023
হোম লাইফ স্টাইলমাউথ ওয়াশের ধরন, ব্যবহারের নিয়ম ও উপকারিতা

মাউথ ওয়াশের ধরন, ব্যবহারের নিয়ম ও উপকারিতা

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

উন্মুক্ত হোক মালয়েশিয়া শ্রমবাজার

মালয়েশিয়া শ্রমবাজার নিয়ে দীর্ঘসময় জটিলতা চলছে। বারবার উদ্যোগ নিলেও ফলপ্রসূ হচ্ছে না। দুদিনের সফরে...

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রি তৃতীয় বর্ষের ফল প্রকাশ

বার্তাকক্ষ ,,জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে অনুষ্ঠিত ২০২০ সালের ডিগ্রি তৃতীয় বর্ষ চূড়ান্ত পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ...

আশংকাজনক হারে বাড়ছে মুখের ক্যান্সার

বার্তাকক্ষ ,,বিশ্বে ক্যান্সারে মোট মৃত্যুর কারণের মধ্যে মুখের ক্যান্সার নবম। বিশ্বে সকল ক্যান্সারের মধ্যে...

১২ দিনেই শাহরুখের পাঠানের আয় ৮৩২ কোটি রুপি

বার্তাকক্ষ ,,চার বছর পর ফিরেই একের পর এক রেকর্ড গড়ে চলেছেন শাহরুখ খান। তার...

বার্তাকক্ষ ,, মাউথ ওয়াশ একজাতীয় রাসায়নিক উপাদানসমৃদ্ধ তরল জীবাণুনাশক। ফ্লোরাইড মাউথ ওয়াশের অন্যতম এক উপাদান। এটি মুখের ভেতরকার ত্বক, দাঁত, মাড়ি, জিহ্বা ও কণ্ঠনালির সুরক্ষায় উপকারী এবং মুখের দুর্গন্ধ দূর করে। তবে ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী মাউথ ওয়াশ ব্যবহার করা উচিত।
মাউথ ওয়াশের ধরন
বাজারে পাঁচ ধরনের মাউথ ওয়াশ পাওয়া যায়—
– কসমেটিক মাউথ ওয়াশ : মুখে সুগন্ধ আনে
– ফ্লোরাইডযুক্ত মাউথ ওয়াশ : দাঁত গঠনে সাহায্য করে
– রোগ প্রতিরোধে মাউথ ওয়াশ : মুখের ঘা নিরাময় করে
– অ্যালকোহল ফ্রি ন্যাচারাল মাউথ ওয়াশ : যাদের মুখ বেশি শুষ্ক থাকে তাদের জন্য
– প্রেসক্রিপশন মাউথ ওয়াশ : মাড়ির প্রদাহ হলে ব্যবহৃত হয়।
উপকারিতা
– মুখগহ্বরে সুগন্ধ ফিরিয়ে আনে
– মুখ থেকে খাদ্যবস্তু পরিষ্কার করে
– দন্তক্ষয় রোগ প্রতিরোধ করে
– দাঁতের শিরশির বন্ধ করে
– মাড়ির রোগ প্রতিরোধ করে
– মুখের শুষ্কতা কমিয়ে আনে
– দাঁত সাদা করে
মাউথ ওয়াশ ব্যবহারের নিয়ম
– চার চা চামচ (২০ মিলিলিটার) পরিমাণ মাউথ ওয়াশ একটি কাপে নিতে হবে।
– কাপ থেকে মাউথ ওয়াশ মুখে নিতে হবে।
– এটি মুখে ৩০ সেকেন্ড ধরে রাখতে হবে।
– যখন মুখে মাউথ ওয়াশ থাকবে, তখন গারগল করতে হবে।
– অতঃপর মাউথ ওয়াশ বেসিনে ফেলে দিতে হবে।
ক্ষতিকর দিক
– ফ্লোরহেক্সিডিনযুক্ত মাউথ ওয়াশ দাঁতে দাগ ফেলে।
– মুখের স্বাদ নষ্ট করে।
ব্যবহারে সতর্কতা
– মাউথ ওয়াশে বেশি পরিমাণে অ্যালকোহল ও ফ্লোরাইড থাকায় ছয় বছরের নিচে বাচ্চাদের ব্যবহার করা ঠিক নয়।
– ফ্লোরহেক্সিডিনে এলার্জি থাকলে মাউথ ওয়াশ ব্যবহার করা যাবে না।
– প্রতিদিন ৩০ সেকেন্ড সময় ধরে ব্যবহার করতে হবে।
– মাউথ ওয়াশ গিলে ফেলা যাবে না।
– দাঁত ব্রাশ করার পর মাউথ ওয়াশ ব্যবহার করতে হবে।
– গর্ভবতী মায়েদের ক্ষেত্রে ডাক্তারের পরামর্শে ব্যবহার করা উচিত।
– বুকের দুধদানকারীদের মাউথ ওয়াশ ব্যবহারের ক্ষেত্রে ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে।
পরামর্শ দিয়েছেন
ডা. অনুপম পোদ্দার
অধ্যক্ষ, খুলনা ডেন্টাল কলেজ

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

বিকেলের নাশতায় রাখুন চিকেন ব্রেড রোল

বার্তাকক্ষ ,,রোল খেতে কে না পছন্দ করেন। হালকা ক্ষুধার বড় সমাধান হলো এই খাবার।...

পায়ে ব্যথা ও চুলকানি হতে পারে কঠিন যে রোগের লক্ষণ

বার্তাকক্ষ ,,অনিয়মিত জীবনধারণের কারণে কম বয়সীদের মধ্যেই দেখা দিতে পারে থাইরয়েডের সমস্যা। এক্ষেত্রে শরীরে...

কিয়ারার রূপ ও ফিটনেসের গোপন রহস্য

বার্তাকক্ষ ,,বলিউড তারকা কিয়ারা আদভানি ও সিদ্ধার্থ মালহোত্রার বিয়ের অনুষ্ঠান শুরু হয়ে গেছে। কয়েক...