Monday, February 6, 2023
হোম লাইফ স্টাইলশীতে পা ঠান্ডা হয়ে পেশিতে টান ধরে কেন?

শীতে পা ঠান্ডা হয়ে পেশিতে টান ধরে কেন?

Published on

সাম্প্রতিক সংবাদ

নিপাহ ভাইরাস : সতর্ক হোন

নিপাহ ভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ছে। ইতোমধ্যে দেশের ২৮ জেলায় এই ভাইরাসের সংক্রমণ পাওয়া গেছে বলে...

ফাত্তাহ তানভীর রানার গল্প: প্রেমিকরা-প্রেমিকারা

শিয়া মসজিদ থেকে তাজমহল রোড ধরে একটু সামনে এগোলে রাস্তার ধারে অনেকগুলো বাড়ির মধ্যে...

মাথাপিছু আয় কমে ২৭৯৩ ডলার

বার্তাকক্ষ ,,দেশের মানুষের মাথাপিছু আয় কমে দুই হাজার ৭৯৩ ডলারে নেমে এসেছে। চূড়ান্ত হিসাবে...

৫ মেডিক্যাল কলেজের কার্যক্রম স্থগিত, একটি বাতিল

বার্তাকক্ষ ,,আইন ও নীতিমালা অনুসারে মানসম্পন্ন শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা না করায় পাঁচটি বেসরকারি মেডিক্যাল...

বার্তাকক্ষ ,, শীতে পা ঠান্ডা হয়ে অবশ হয়ে যাওয়া কিংবা পেশিতে টান ধরার ঘটনার সম্মুখীন হন কমবেশি সবাই। এ সময় ঠান্ডা আবাহাওয়ার কারণে পেশিতে টান ধরার ঘটনা বেড়ে যায়।এমনকি ঘুমের মধ্যেও এ সমস্যা হতে পারে। আবার ঘুম থেকে উঠতে গেলে কিংবা সকালে হাঁটতেই পায়ের শিরায় টান ধরতে পারে। কখনো বা হাঁটতে হাঁটতে হঠাৎই বেঁকে যায় পায়ের আঙুল। তবে এর কারণ কী?
বিশেষজ্ঞদের মতে, শীতে ঠান্ডা আবহাওয়ার কারণে অনেকেই পর্যাপ্ত পানি পান করেন না। এর থেকে শরীরে ডিহাইড্রেশনের সৃষ্টি হয়। শরীরে পানির পরিমাণ কমে গেলে এই টান ধরার প্রবণতা বাড়ে।
এছাড়া শরীর ও পরিবেশের তাপমাত্রার ভারসাম্য ঠিক না থাকার কারণেও শীতে পেশিতে টান ধরার সমস্যা বাড়তে পারে। এ সময় অনেকেই অলস জীবনযাপন করেন, ফলে হঠাৎ করে সামান্য পরিশ্রম করলেও পেশিতে টান ধরতে পারে।
আরও বিভিন্ন কারণে পেশিতে টান ধরতে পারে। যার মধ্যে ভিটামিনের ঘাটতিও উল্লেখিত। শরীরে ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, পটাশিয়ামের ঘাটতির কারণেও শীতে এ সমস্যা হতে পারে।এমনকি অতিরিক্ত ব্যায়াম, পরিশ্রম বা পায়ের পেশির বেশি ব্যবহার কিংবা বেশি সময় বসে থাকা, শক্ত জায়গায় দাঁড়িয়ে থাকা, ঘুমের সময় ভুল দেহভঙ্গির কারণেও পেশিতে টান ধরতে পারে।
এই সমস্যা কোনো রোগের লক্ষণ নয় তো?
বিশেষজ্ঞদের মতে, শরীরে কোলেস্টেরলের পরিমাণ বেড়ে গেলে ধমনীগুলোর ভেতর চর্বির আস্তরণ তৈরি হয়। একে ‘অ্যাথেরোস্ক্লেরসিস’ বলে। এই আস্তরণ বা প্লাক তৈরির ফলে রক্ত চলাচল বাধাপ্রাপ্ত হয়।
ফলে শরীরের বিভিন্ন স্থানে রক্ত চলাচল করতে পারে না, এই সমস্যাকে বলে ‘পেরিফেরাল আর্টারি ডিজিজ’ বা ‘পিএডি’। এই সমস্যার কারণে ব্যথা হয় বিভিন্ন অঙ্গে।বিশেষজ্ঞদের মতে, শরীরে খারাপ কোলেস্টেরল বাড়লে ধমনীগুলোর ভেতর চর্বির আস্তরণ তৈরি হয়। বিশেষ করে পায়ে রক্ত চলাচল কমে যেতে পারে। ফলে পেরিফেরাল আর্টারি ডিজিজ বা পিএডি নামক অবস্থার সৃষ্টি হয়, যা খুবই বেদনাদায়ক।
মায়ো ক্লিনিকের মতে, পিএডি’র কারণে পায়ে রক্তের প্রবাহ কমে যায়। তাই হাঁটার সময় পায়ে ব্যথা হতে পারে। আবার পেশিতে টান ধরার সমস্যা দেখা দিত পারে।
পিএডির অন্যান্য লক্ষণগুলোর মথ্যে আছে- পায়ের অসাড়তা বা দুর্বলতা, পায়ের ত্বকের রং পরিবর্তন, নখের ধীর বৃদ্ধি, পায়ের আঙুলে ঘা ইত্যাদি।

spot_img
spot_img

এধরণের সংবাদ আরো পড়ুন

শীতের বিকেলে স্বাদ নিন ঝাল চিতইয়ের

বার্তাকক্ষ ,,শীত আসতেই বাহারি পিঠা খাওয়ার ধুম পড়ে যায়। শীতের বাহারি পিঠার মধ্যে চিতই...

গ্যালিটো’স এখন বাংলাদেশে

বার্তাকক্ষ ,,বাংলাদেশে যাত্রা শুরু করেছে দক্ষিণ আফ্রিকার জনপ্রিয় ফ্লেম গ্রিল্ড পিরি-পিরি চিকেন রেস্টুরেন্ট চেইন...

মানসিক শান্তি পেতেই ৯০ শতাংশ মানুষ পরকীয়া করেন, বলছে সমীক্ষা

বার্তাকক্ষ ,,বিবাহবহির্ভূত বা পরকীয়া সম্পর্ক দাম্পত্য জীবনে ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে। এর পরিণতি কখনো কখনো...