৯৫ বছর বয়সে মাস্টার্স!

0
14

প্রতিদিনের ডেস্ক
ইচ্ছে থাকলে উপায় হয়, এই কথা আবারও প্রমাণ করলেন ৯৫ বছর বয়েসি ডেভিড মার্জট। তার কাণ্ডে হতবাক গোটা নেটপাড়া। কানাডার ভাঙ্কুভারের সারির বাসিন্দা ডেভিড মার্জট। ৯৫ বছর বয়সে তিনি মাস্টার্স করলেন আর্টসে। কিংস্টন বিশ্ববিদ্যালয়ে মর্ডার্ন ইউরোপিয়ান ফিলোসফির ওপরে স্নাতকোত্তর হন তিনি। মনোরোগ বিশেষজ্ঞ হওয়ার ৭২ বছর পর তিনি আবারও ছুটে যান সেই পড়াশোনার দিকেই। পড়াশোনার সত্যিই কোনো বয়স হয় না। এদিকে, এই ঘটনা ছড়িয়ে পড়তেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রশংসার ঝড় উঠেছে।ডেভিড মার্জট কিংস্টন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মর্ডার্ন ইউরোপিয়ান ফিলোসফি বা আধুনিক ইউরোপীয় দর্শনে এমএ বা স্নাতকোত্তর শেষ করেছেন। ডাক্তারি পাস করার ৭২ বছর পর বর্তমানে এই ডিগ্রি প্রাপ্তি। বিশ্ববিদ্যালয়ের সূত্রে জানা গেছে, মার্জট এখন পার্টটাইম ডক্টরেটের চিন্তা-ভাবনা করছেন, যা সম্পন্ন হতে হতে ১০২ বছর বয়স হবে তার। মার্জটের ভাষ্য মতে, তার এই ডিগ্রি তার পরিশ্রমের প্রতীক। তিনি বলেন, ‘আমার স্মৃতি আর আগের মতো নেই।’ যারা শিক্ষাকে মাঝপথে ছেড়ে দিয়েছেন এবং এখন নতুন করে আবার পড়াশোনা শুরু করতে চান; তাদের উদ্দেশে মার্জট বলেন, ‘এটি একটি জুয়া খেলার মতো। আপনি বাজি ধরবেন, হয় জিতবেন নয় হারবেন। তবে মোদ্দা কথা হলো এই যে, যদি আপনার ইচ্ছে থাকে, আত্মার থেকে করতে ইচ্ছে করে, তবে এগিয়ে যান। সাফল্য আসতে বাধ্য।’
মার্জটের বিয়ের ৬৫ বছর পর তার স্ত্রীবিয়োগ হয়। তিনি জানান, তার এই স্নাতকোত্তর ডিগ্রি তার মন মেজাজকে চাঙ্গা রাখতে সাহায্য করেছে। এমন কৃতী ছাত্রের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে কিংস্টন বিশ্ববিদ্যালয়ের এক অধ্যাপক স্টেলা স্যান্ডফোর্ড বলেন, ‘ডেভিড যখন আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে আসেন, তার কাছে আগাগোড়াই এক অভাবনীয় ক্যারিয়ার ছিল। সেই সঙ্গে ছিল জ্ঞান ও অকল্পনীয় অভিজ্ঞতার সম্পদ।’
সূত্র: বিবিসি, হিন্দুস্তান টাইমস