১০ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ  । ২৫শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ 

যশোরে পুলিশ সদস্যের বিশেষাঙ্গ ব্লেড দিয়ে জখম করলো সাবেক স্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক
যশোরে এবার এক পুলিশ সদস্যের বিশেষাঙ্গ ব্লেড দিয়ে জখম করেছেন তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রী। অন্তরঙ্গ সময় কাটানোর সময় এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছেন ওই পুলিশ সদস্য। মঙ্গলবার বিকেলে ৫টার দিকে তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে ঢাকায় রেফার করা হয়েছে। আহত ইমদাদুল হক (২৭) নড়াইলের লোহাগাড়া উপজেলার আমদা গ্রামের বজলেয়ার হকের ছেলে। নায়েক পদবীধারী ইমদাদুল হক যশোর পুলিশ লাইনে কর্মরত রয়েছেন। আহত ইমদাদুল হক জানান, ডলি নামে তার একজন স্ত্রী ছিল। সম্প্রতি তার সাথে বিবাহ বিচ্ছেদ হয়। তাকে নিয়েই মঙ্গলবার সকালে তিনি নড়াইলে যান। দুপুরের দিকে নড়াইল শহরের স্টেডিয়াম পাড়ার একটি হোটেলে উঠেন। দুপুরের খাবারের পর তারা বিশ্রাম নিচ্ছিলেন। দুপুর ৩ টার দিকে অন্তরঙ্গ হলে একপর্যায়ে ডলি ব্লেড দিয়ে তার গোপনাঙ্গে আঘাত করে। এরপর তিনি লুঙ্গি দিয়ে চেপে ধরে নড়াইল সদর হাসপাতালে যান। সেখান থেকে ব্যান্ডেজ করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে এসে ভর্তি হন। ইমদাদুল হকের প্রথম স্ত্রী আফরিন সুলতানা মিম দ্বিতীয় স্ত্রীর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তবে এ বিষয়ে তিনি কোন কথা বলতে রাজি হননি। এ বিষয়ে যশোর জেনারেল হাসপাতালের আরএমও ডা. আব্দুস সামাদ জানান, ইমদাদুল হকের বিশেষাঙ্গের বেশিরভাগই কেটে গেছে। সেলাই করা হয়েছে। তবে অঙ্গটি ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। যে কারণে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় স্থানান্তর করা হয়েছে। যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বেলাল হোছাইন জানান, তিনি ঢাকায় অবস্থান করছেন। তবে ঘটনাটি শুনেছেন। দ্বিতীয় স্ত্রীর সাথে সাংসারিক গোলযোগের কারণে এ ঘটনা ঘটেছে। এটা তাদের ব্যক্তিগত ব্যাপার। এখানে আমাদের করণীয় কিছু নেই। উল্লেখ্য, গত ৯জুন দুপুরে যশোর শহরের ধর্মতলা এলাকায় মইনুল হক রসি নামে এক ব্যক্তিকেও তার স্ত্রীর ব্লেড দিয়ে বিশেষাঙ্গ কেটে দেয়।

আরো দেখুন

Advertisment

জনপ্রিয়