৬ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ  । ২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ 

অ্যাপ ‘আকাশ গো’ নিয়ে এলো আকাশ ডিজিটাল টিভি

প্রতিদিনের ডেস্ক:
গ্রাহকদের জন্য ডিটিএইচ (ডিরেক্ট-টু-হোম) সংযোগের সঙ্গে ‘আকাশ গো’ কম্প্যানিয়ন অ্যাপ নিয়ে এসেছে বেক্সিমকো কমিউনিকেশন্সের আকাশ ডিজিটাল টিভি। দেশের একমাত্র ডিটিএইচ পে টিভি অপারেটরটির বিদ্যমান ও নতুন গ্রাহকরা তাদের সংযোগের সঙ্গে এখন থেকে ‘আকাশ গো’ অ্যাপটি ব্যবহার করতে পারবেন। এর মাধ্যমে লাইভ টিভি চ্যানেল টেলিভিশনের পাশাপাশি মোবাইলেও দেখা যাবে।এই নতুন অ্যাপটি গ্রাহকদের হটস্টার স্পেশালের মতো প্রিমিয়াম কনটেন্ট উপভোগ করারও সুযোগ দেবে। শুধু আকাশ ডিটিএইচের স্ট্যান্ডার্ড প্যাক ব্যবহারকারীরা এই কম্প্যানিয়ন অ্যাপটি ব্যবহার করতে পারবেন। এজন্য বাড়তি কোনো ফি বা খরচ গুনতে হবে না।রাজধানীর একটি পাঁচ তারকা হোটেলে এক অনুষ্ঠানে সোমবার (৮ জুলাই) সন্ধ্যায় এই পরবর্তী প্রজন্মের প্ল্যাটফর্ম উদ্বোধনের ঘোষণা দেওয়া হয়।অনুষ্ঠানে তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ আলী আরাফাত এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে এবং যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রী নাজমুল হাসান পাপন এমপি বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন বেক্সিমকো কমিউনিকেশন্স লিমিটেডের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়ান এফ রহমান এবং প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ড. তারিক আলম।অনুষ্ঠানে উপস্থিত টাটা প্লে’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও হরিৎ নাগপাল এবং ডিজনি স্টারের প্রধান (বিতরণ ও আন্তর্জাতিক) গুরজিভ সিং কাপুরকে ধন্যবাদ জানিয়ে তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ আলী আরাফাত এমপি প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, স্থানীয় উদ্যোগ আকাশের সঙ্গে যুক্ত হওয়ার জন্য ধন্যবাদ। এই অংশীদারত্ব উদ্ভাবনী ধারণা ও প্রযুক্তির বিনিময়ে সহায়তা করবে। আকাশ গো কম্প্যানিয়ন অ্যাপ চালুর ধারণার প্রশংসা করে তিনি বলেন, বাংলাদেশের মানুষের তথ্য ও বিনোদনের চাহিদা মেটাতে এটি নি:সন্দেহে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।বেক্সিমকো কমিউনিকেশন্স লিমিটেডের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়ান এফ রহমান বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এবং তার উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের স্মার্ট বাংলাদেশ রূপকল্প এবং নেতৃত্বের কারণে আমরা এখন ডিজিটাল বিশ্বের সক্রিয় নাগরিক। শতভাগ নাগরিকের কাছে ফোন পৌঁছে যাওয়ার পাশাপাশি ৭০ ভাগের বেশি জনগণ ইন্টারনেট এবং ৬২ শতাংশের বেশি মানুষ মোবাইল ওয়ালেট ব্যবহারের সুযোগ পাচ্ছেন।তিনি বলেন, ডিজিটাল প্রযুক্তির প্রয়োগে সেই একই লক্ষ্য বাস্তবায়নে এখন বিনোদন শিল্পের এগিয়ে আসার পালা। ডিজিটাল বিনোদন শিল্পের দুই বিলিয়নের বেশি মূল্যমানের শিল্প হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। সরকারের রাজস্ব আয় বাড়াতেও এ খাত বড় ধরনের ভূমিকা রাখতে পারে। এ সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে এবং মনিটাইজেশন মডেল বাস্তবায়নে সহযোগিতামূলক আইনি পরিবেশের পাশাপাশি বেসরকারি খাতকেও প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হতে হবে। এর ফলে গ্রাহকদের পাশাপাশি সকল অংশীজন উপকৃত হতে পারবেন।আকাশ ডিজিটাল টিভির সিইও ড. তারিক আলম বলেন, গ্রাহকদের মধ্যে টিভি দেখার অভ্যাসে ও পছন্দে প্রতিনিয়ত পরিবর্তন আসছে। সেই অভ্যাসের সঙ্গে তাল মিলিয়ে তাদের চাহিদা মেটাতে প্রথাগত টিভি দেখার সমাধানের পাশাপাশি উদ্ভাবনী সমাধানের মিশেল দরকার। ঘরে এবং ঘরের বাইরে চলতি পথে টিভি বা কনটেন্ট উপভোগের সুযোগ তৈরিই হচ্ছে চূড়ান্ত সমাধান।তিনি জানান, আকাশ গো কম্প্যানিয়ন অ্যাপটির মাধ্যমে অ্যান্ড্রয়েড বা আইওএস ডিভাইস সেকেন্ডারি স্ক্রিন হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন গ্রাহকরা। যার ফলে মানসম্পন্ন স্থানীয় ও বৈশ্বিক কনটেন্ট সমৃদ্ধ লাইভ টিভি এবং ডিজিটাল কনটেন্ট দেখার সুযোগ হাতের মুঠোতেই মিলবে।গ্রাহকের বিনোদন ও তথ্যের চাহিদা পূরণে ডিজিটালের প্রধান ভূমিকা রয়েছে। সেক্ষেত্রে ‘মাই আকাশ’ সেল্ফ কেয়ার অ্যাপ এবং ওয়েব পোর্টাল ব্যবহারকারীদের তাৎক্ষণিক প্রয়োজন মেটাতে একটি সহজ সমাধান হিসেবে কাজ করবে।নতুন আকাশ এইচডি সেট টপ বক্স অতুলনীয় এইচডি ছবি দেখার গুণমান নিশ্চিতের পাশাপাশি দ্বি-ভাষিক ইংরেজি ও বাংলা ইন্টারফেসের অভিজ্ঞতা দেবে ব্যবহারকারীদের। উদ্ভাবনী, সহজে বোধগম্য এবং ব্যবহারকারী-বান্ধব পদ্ধতিতে চ্যানেলগুলো ও কনটেন্টগুলো সাজানো হয়েছে। এর ফলে গ্রাহকরা এখন ৩ ক্লিকে এবং ৩ সেকেন্ডের মধ্যে তাদের পছন্দের চ্যানেলগুলো দেখতে পাবেন। নতুন ইউনিভার্সাল রিমোট ব্যবহার করে গ্রাহকরা টিভি এবং সেট টপ বক্স উভয়ের মূল ফাংশনগুলো ব্যবহার করতে পারবেন যা টিভিতে বিভিন্ন চ্যানেল দেখাকে আরও সহজ ও সুবিধাপূর্ণ করবে।

আরো দেখুন

Advertisment

জনপ্রিয়